বৃহস্পতিবার , ১৯ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » জ্ঞান-বিজ্ঞান » ইউটিউব থেকে ৮ বছরের মেয়ের মাসিক আয় ১ লক্ষ ৬৬ হাজার ডলার

ইউটিউব থেকে ৮ বছরের মেয়ের মাসিক আয় ১ লক্ষ ৬৬ হাজার ডলার

Queenslander Charli'sহলিউড তারকা মানেই ধনকুবের। দামি গাড়ি। বিলাসবহুল জীবনযাত্রা। পাপারাত্জিদের হুড়োহুড়ি। ফ্ল্যাশবাল্বের ঝলকানি। একটু মাথা খাটালে যে হলিউড তারকাদের মতো পরিচিত ও তাঁদের মতোই অর্থ উপার্জন করা যায়, তা-ই দেখিয়ে দিল ৮ বছরের এই খুদে। শিশুটির মাসিক আয় এখন ১ লক্ষ ৬৬ হাজার মার্কিন ডলার। অনেক পপস্টারের আয়ও এত হয় না। সৌজন্য ইউটিউব।

ইন্টারনেটের যুগে ব্যাপক জনপ্রিয় ইউটিউব। বহু মানুষের বিনোদনের একটা অন্যতম রসদ ইউটিউব। এহেন ইউটিউব-কে হাতিয়ার করেই ধনকুবের হয়ে উঠেছে ৮ বছর বয়সী অস্ট্রেলীয় শিশু। একটি আন্তর্জাতিক বিজ্ঞাপনী সংস্থার সাম্প্রতিক তথ্য বলছে, ইউটিউবে সব থেকে বেশি দেখা হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার বালিকা চার্লির ভিডিয়ো। জনপ্রিয়তার জেরে শিশুটি এই বয়সেই ইউটিউবে একটি চ্যানেল খুলে ফেলেছে। নাম Queenslander Charli’s চ্যানেল। এই চ্যানেলটির গড় আয় প্রতি মাসে ১ লক্ষ ২৭ হাজার ৭৭৭ মার্কিন ডলার। মাসে গড় দর্শক সংখ্যা ২ কোটি ৯০ লক্ষ। মার্চে প্রায় ৩ কোটি ছুঁয়েছে।

কী ভাবে?

সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ইউটিউবে সবচেয়ে বেশি দেখা হয় বিউটি, স্টাইল ও রান্নার ভিডিয়ো। ৮ বছরের চার্লি ইউটিউবে শেখায়, খাবার কত রকম ভাবে বেক করা যায়। এমনকি, বেক করা বিভিন্ন রান্নাও শেখায় ছোট্ট চার্লি। অল্প দিনেই চার্লির ভক্তকূল বাড়তে শুরু করে। এখন চার্লি ইউটিউবের সবচেয়ে ধনী তারকা। চার্লির বয়স যখন মাত্র ৬, তখন তার বোনের সঙ্গে মিলে বেক করার নানা ভিডিও আপলোড করা শুরু করে। ক্রমেই আয় বাড়তে থাকে। এখন ধনকুবের।– ওয়েবসাইট।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print