রবিবার , ২২ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » কলেজ » ঢাবি প্রক্টরের পদত্যাগ দাবি ছাত্র ইউনিয়নের

ঢাবি প্রক্টরের পদত্যাগ দাবি ছাত্র ইউনিয়নের

duপয়লা বৈশাখে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) যৌন হয়রানির প্রতিবাদ ও প্রক্টরের পদত্যাগ দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সংসদ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে শনিবার দুপুরে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

লিখিত বক্তব্য পাঠকালে ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি হাসান তারেক বলেন, ‘যৌন নিপীড়নের ঘটনাকে মিথ্যা হিসেবে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। জড়িতদের বাঁচাতে প্রক্টর, পুলিশ, ভিসি যখন একই সরলরৈখিক অবস্থান নেয়, তখন লজ্জিত ও সংক্ষুব্ধ হওয়া ছাড়া আর কোনো পথ থাকে না।’

তিনি বলেন, ‘ঘটনা ঘটার সময় থেকে এখন পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা প্রক্টর চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন, খেতাব কুড়িয়েছেন অদায়িত্বশীলতার।’

সংগঠনের সভাপতি বলেন, “গত কয়েক দিনে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রক্টর বারংবার মিথ্যাচার করেছেন। গত ১৬ এপ্রিল একাত্তর সংযোগে তিনি বলেন, ‘লিটন নন্দী ছাড়া আর কোনো প্রত্যক্ষদর্শী নেই’ এবং ‘সিসিটিভিতেও প্রমাণ নেই’। ইতোমধ্যেই তার বক্তব্য মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে, যার প্রমাণ একাত্তর টিভির ভিডিও ফুটেজ।”

‘দায়িত্ব পালনে চূড়ান্তভাবে ব্যর্থ-মিথ্যাচারী প্রক্টরের অপসারণ চাই’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এমন মিথ্যাচারী মানুষ জাতির বিবেকখ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো মানুষ গড়ার প্রতিষ্ঠানে প্রক্টর হিসেবে তো নয়ই, শিক্ষক হিসেবেও থাকার নৈতিক অধিকার রাখেন না।’

পুলিশের সমালোচনা করে হাসান তারেক বলেন, ‘ঘটনার দিন সংগঠনের নেতাকর্মীরা কয়েকজন নিপীড়ককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করলেও পরক্ষণেই পুলিশ তাদের ছেড়ে দেয়।’

তিনি বলেন, ‘পুলিশের ভাষ্যানুযায়ী সিসি ক্যামেরার ফুটেজে নাকি তেমন কিছু পাওয়া যায়নি। একাত্তর টিভি পুলিশের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ নিয়েই দেখিয়েছে সেদিন কী কী ঘটেছিল। তবে আমরা প্রশ্ন রাখতে চাই একই ফুটেজ একাত্তর টিভি পেল, পুলিশ কেন পেল না?’

সংবাদ সম্মেলনে তিনদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে ছাত্র ইউনিয়ন। কর্মসূচিগুলো হলো ১৯ এপ্রিল সারাদেশে বিক্ষোভ ও সংহতি সমাবেশ, ২০ এপ্রিল সকাল ১১টায় অপরাজেয় বাংলা থেকে কার্জন হল পর্যন্ত মানববন্ধন এবং ২১ এপ্রিল সকাল ১১টায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বরাবর স্মারকলিপি পেশ।

কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি মারুফ বিল্লাহ তন্ময়, ঢাবি সংসদের সভাপতি লিটন নন্দী, ঢাবি সংসদের সাধারণ সম্পাদক তুহিন কান্তি দাস, ঢাকা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক সুমন সেন গুপ্ত, ঢাকা মহানগরের সাংগঠনিক সম্পাদক অনিক রায় প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print