সোমবার , ১৬ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » টেনিস » ভয়ঙ্কর বৈষম্যমূলক আচরণ করা হচ্ছে

ভয়ঙ্কর বৈষম্যমূলক আচরণ করা হচ্ছে

amaz-uddin-ahmedআদর্শ ঢাকা আন্দোলনের আহ্বায়ক অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমেদ অভিযোগ করেছেন, ‘বিরোধী দলের সমর্থিত প্রার্থীদের প্রচারণায় ভয়ঙ্কর বৈষম্যমূলক আচরণ করা হচ্ছে।’ আদর্শ ঢাকা আন্দোলনের ব্যানারে সিটি নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে বিএনপি।

শুক্রবার সন্ধ্যায় পুরোনো পল্টনে আর্দশ ঢাকা আন্দোলনের নির্বাচনী কার্যালয়ে খানিকটা তড়িঘড়ি করে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন এমাজউদ্দীন।

তিনি বলেন, ‘একদিকে ক্ষমতাসীন দলের ১৬ জন প্রার্থীকে হত্যা মামলা থেকে রেহাই দেয়া হয়েছে। অন্যদিকে বিরোধী দলের সমর্থিত ঢাকা দক্ষিণের মেয়র প্রার্থী জামিন পাচ্ছেন না। এরকম হলে এটি ভয়ঙ্কর বৈষম্যমূলক আচরণ। এহেন আচরণ কোনোভাবে আমাদের কাছে গ্রহনযোগ্য নয়।’

দক্ষিণের ক্ষমতাসীন দল সমর্থিত মেয়রপ্রার্থী সাঈদ খোকনের একটি বক্তব্যের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘সাঈদ খোকনের বক্তব্যে একটি শব্দ আমার কাছে আপত্তিকর মনে হয়েছে। তিনি (সাঈদ খোকন) বলেছেন, জান বাঁচাতে চাইলে ইলিশ মার্কায় ভোট দিন। এটা একটা হুমকি। এরকম কথা শুনতেও খারাপ লাগে।’

এমাজউদ্দীন আরো বলেন, ‘আমরা একটি উৎসবমুখর পরিবেশে সুষ্ঠু, অবাধ ও গ্রহনযোগ্য নির্বাচন চাচ্ছি। নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব সেই পরিবেশ সৃষ্টি করা। নইলে ভোটাররা হতাশ হবেন।’

বিকেলে মির্জা আব্বাসের পক্ষে তার স্ত্রী বংশালে প্রচারণা চালাতে গেলে সেখানে ক্ষমতাসীন দলের লোকজন হামলা চালিয়েছেন এমন অভিযোগের পর ওই ঘটনার নিন্দাও জানান তিনি।
আদর্শ ঢাকা আন্দোলনের সদস্য সচিব শওকত মাহমুদ অভিযোগ করেন, ‘নির্বাচনের পরিবেশকে আতঙ্কগ্রস্ত করা হচ্ছে। বিরোধী দলের প্রার্থীদের প্রচারণায় বাধা দেয়া হচ্ছে। গতকালও একজন কাউন্সিলর প্রার্থীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজও ৬ নং ওয়ার্ডে বিরোধী দলের সমর্থিত প্রার্থীকে লোকজন নিয়ে প্রচারণা চালাতে গেলে পুলিশ বাধা দিয়েছে। এটা কোনো সুষ্ঠু নির্বাচনের বার্তা বহন করে না।’

সংবাদ সম্মেলনে অন্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- সংগঠনের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মাহবুবউল্লাহ, স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য অধ্যাপক সুকোমল বড়ুয়া, আবদুল হাই শিকদার, প্রচার ও প্রকাশনা উপকমিটির এম আবদুল্লাহ, জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print