শুক্রবার , ২২ জুন ২০১৮
মূলপাতা » সরকারি » ছাত্রলীগের দুগ্রুপে সংঘর্ষ ,বন্ধ হলো রংপুর মেডিকেল

ছাত্রলীগের দুগ্রুপে সংঘর্ষ ,বন্ধ হলো রংপুর মেডিকেল

imagesআধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আজ বুধবার ভোরে রংপুর মেডিকেল কলেজের ডা. মুক্তা ছাত্রবাসে ছাত্রলীগের দুগ্রুপে সংঘর্ষে মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি শহীদসহ ১০ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় তিনজনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সংঘর্ষ চলাকালে চারটি কক্ষ ভাঙচুর ও ল্যাপটপসহ মালামাল লুট করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বিকাল ৩টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ এবং নির্দিষ্টকালের জন্য কলেজ বন্ধ ঘোষণা করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।
পুলিশ জানায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার রাতে ছাত্রলীগের দুগ্রুপের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। এরই জের ধরে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা সরোয়ারের নেতৃত্বে একদল ছাত্রলীগ কর্মী ডা. মুক্তা ছাত্রাবাসে হামলা চালায়। এতে ১০ ছাত্রলীগ নেতা আহত হন। এদের মধ্যে ছাত্রলীগ সভাপতি শহীদুজ্জামান শহীদ তার ছোট ভাই আসাদ ও ছাত্রলীগ নেতা আসিক ফেরদৌসকে গুরুতর অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সংঘর্ষ চলাকালে ওই ছাত্রাবাসের চারটি কক্ষ ৩৭, ৩৮, ৩৯ও ৪০ নম্বর কক্ষ ব্যাপক ভাঙচুর করে ল্যাপটপসহ অন্যান্য মালামাল লুট করা হয়েছে বলে ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
এঘটনার পর সম্ভাব্য গোলযোগের আশঙ্কায় ডা. মুক্তা ছাত্রাবাসে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
রংপুর কোতয়ালী থানার ওসি অঅব্দুল কাদের জিলানী জানান, যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় পুলিশ তৎপর রয়েছে।
রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অধ্যক্ষ ডা. জাকির হোসেন জানান, উদ্ভুত পরিস্থিতির জন্য কলেজ বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print