মঙ্গলবার , ১৪ আগস্ট ২০১৮
মূলপাতা » ক্রিকেট » ধাওয়ানের ক্যাচটিকেই সেরা বলছে আইসিসি!

ধাওয়ানের ক্যাচটিকেই সেরা বলছে আইসিসি!

শিখরের ক্যাচটিকেইকী অদ্ভূত কা-ই না করে যাচ্ছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)! ক্রিকেট-বিশ্বকে বোকা বানানোই কি স্বভাব হয়ে দাঁড়িয়েছে সংস্থাটির কর্তাদের?

 

১১তম বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচে বাজে আম্পায়ারিং নিয়ে কম নাটক হয়নি। ওই ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে একের পর এক ভুল সিদ্ধান্ত দিয়ে যাচ্ছিলেন দুই বিতর্কিত আম্পায়ার আলিম দার ও ইয়ান গোল্ড। বাজে আম্পায়ারিংয়ের শিকার হয়ে মাঠেই যেন কাতরাতে শুরু করেছিলেন মাশরাফি-সাকিবরা! বিশ্বকাপে অশ্রুসিক্ত বিদায় নিয়ে দেশে ফিরতে হয়েছে টাইগারদের।

 

উল্লেখযোগ্য, তিনটি বিতর্কিত সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন আলিম দার ও ইয়ান গোল্ড। প্রথমত, মাশরাফির বলে সুরেশ রায়নার এলবিডব্লিউর উইকেটটি না দেওয়া। দ্বিতীয়টি হচ্ছে, রোহিত শর্মা নিশ্চিত আউট হওয়ার পরও রুবেল হোসেনের বলটিকে ‘নো’ বলে আখ্যা দেওয়া। আর তৃতীয় বিতর্কিত সিদ্ধান্তটি ছিল বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের সময়ে। ইনিংসের ২১তম ওভারে মোহাম্মদ সামির বল মাঠছাড়া করেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। কিন্তু লং লেগে দাঁড়িয়ে থাকা শিখর ধাওয়ান অতি কষ্টে বলটি লুফে নেওয়ার চেষ্টা করেন। লাফিয়ে বলটি ধরতে গিয়ে বাউন্ডারি লাইন ছুঁয়ে যায় ধাওয়ারের পা। কিন্তু আম্পায়ার সেটিকে ছক্কা না বলে জানিয়ে দিলেন, মাহমুদউল্লাহ আউট!

 

আর শিখর ধাওয়ানের নেওয়া সেই বিতর্কিত ক্যাচটিকেই নাকি বিশ্বকাপের সেরা বলে স্বীকৃতি দিতে যাচ্ছে আইসিসি। আপাতত সেরা একাদশে রেখেছে তারা। সংস্থাটির বিতর্কিত কর্তারা শিখরের সেই ক্যাচটিকে বিশ্বকাপের সেরা বললেও অবাক হওয়ার কিছু নেই। কেননা বিতর্ক ছড়ানোই যে রীতি হয়ে দাঁড়িয়েছে তাদের কাছে।

 

শিখর ধাওয়ানের নেওয়া ক্যাচটির প্রশংসায় বলা হচ্ছে, ‘একটি শান্ত সমাপ্তির ক্যাচ, একটি দারুণ সম্পূর্ণতার ক্যাচ!’


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print