মঙ্গলবার , ১৭ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » কলেজ » হরতালেও পরীক্ষা চলবে :শিক্ষামন্ত্রী

হরতালেও পরীক্ষা চলবে :শিক্ষামন্ত্রী

nahid_541345175e945হরতাল-অবরোধকারীরা এইচএসসি পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন করতে পারবে না বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবেই অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান তিনি।
বুধবার ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে তিনি একথা বলেন।
বিএনপি-জামায়াত জোটকে পরীক্ষার্থীদের জন্য কর্মসূচিতে ছাড় দেয়ার আহ্বান জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দেশের যেকোনো স্থানে একজন পরীক্ষার্থীরও কোনো ক্ষতি হলে তার সম্পূর্ণ দায় তাদের ওপর বর্তাবে।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিএনপি-জামায়াত জোটের অবরোধ ও বিক্ষোভের মধ্যেই এ পরীক্ষা শুরু করেছি।  আমরা অবশ্যই রুটিনমাফিক পরীক্ষা নেবো। এর কোনো ব্যত্যয় হবে না।
তিনি বলেন, গত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবক, আত্মীয়-স্বজন, শুভানুধ্যায়ীসহ সমগ্র দেশবাসীর পক্ষ থেকে আমরা সবার কাছে সনির্বন্ধ অনুরোধ জানিয়েছিলাম- পরীক্ষা চলাকালীন হরতাল-অবরোধ না দেয়া বা দিলেও পরীক্ষাকে এসব কর্মসূচির আওতামুক্ত রাখতে। তারা কোনোটাই করলেন না। তারা অবিবেচকের মতো গত তিন মাস ধরে রাজনীতির নামে ভাড়াটেদের দিয়ে পেট্রোল বোমা মেরে দরিদ্র-অসহায় শতাধিক মানুষ হত্যা করছেন, পঙ্গু করছেন, ভয়ভীতি সৃষ্টি করছেন।
নাহিদ বলেন, তারা ১৫ লাখ এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থীর সীমাহীন ক্ষতি করেছেন। তাদের আত্মবিশ্বাসে আঘাত করেছেন। সাড়ে পাঁচ কোটি শিক্ষার্থীর ক্লাস-পরীক্ষা চলছে না। তারা আমাদের নতুন প্রজন্মের লেখাপড়া বন্ধ করে অন্ধকারে ঠেলে দিতে চায়। আমরা জনগণের সর্বাত্মক সহযোগিতায় শিক্ষার উন্নয়ন এগিয়ে নেবো। । তিনি সকল পরীক্ষার্থীর সুস্থতা ও সফলতা কামনা করেন।
এ সময় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব স্বপন কুমার সরকার, এ এস মাহমুদ, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর আবুবকর সিদ্দিকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এবার এ পরীক্ষায় পৌনে এগার লাখ পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেছে।
রাজনৈতিক অস্থিরতর মধ্যেই আজ সারাদেশে একযোগে শুরু হয়েছে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। শুরুর দিন হরতাল না থাকলেও রয়েছে অবরোধ। এছাড়া পরীক্ষার বাকি দিনগুলোতে বিএনপি জোট হরতালসহ আরও কী কর্মসূচি দেয় তা নিয়ে উৎকণ্ঠায় রয়েছেন অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা। পরীক্ষার্থীদের নিরাপত্তা দিতে ঢাকাসহ সারাদেশে ১৪০ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করেছে সরকার। তবুও নিরাপত্তার ব্যাপারে আস্থা পাচ্ছেন না সংশ্লিষ্টরা।
এর আগে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বারবার বিরোধী জোটকে পরীক্ষার সময় হরতাল না ডাকার আহ্বান জানিয়েছেন। তবে এসএসসি পরীক্ষায় একাধিকবার তার এই আহ্বানে সাড়া দেয়নি বিরোধী জোট। এজন্য এবার হরতাল-অবরোধ চললেও পরীক্ষা চালিয়ে নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বিরোধী জোটকে সতর্ক করেছেন, পরীক্ষা চলাকালে পরীক্ষায় কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলে এর দায় বিএনপি জোটকেই নিতে হবে।
এবার দেশের আট হাজার ৩০৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ১০ লাখ ৭৩ হাজার ৮৮৪ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৫ লাখ ৭০ হাজার ৯৯৩ জন পুরুষ এবং পাঁচ লাখ দুই হাজার ৮৯১ জন নারী পরীক্ষার্থী রয়েছেন।
আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে আট লাখ ৮৬ হাজার ৯৩৩ জন, মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডে ৮৪ হাজার ৩৬০ জন, ভোকেশনালে ৯৮ হাজার ২৪৭ জন এবং ডিপ্লোমা ইন বিজনেস স্টাডিজে চার হাজার ৩৪৪ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। এছাড়া, বিদেশে ৭টি কেন্দ্রে ২৪১ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। বিদেশে কেন্দ্রগুলো হচ্ছে দোহা, আবুধাবি, জেদ্দা, রিয়াদ, ত্রিপলি, দুবাই এবং বাহরাইন।
প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় দেয়া হবে।
এবারের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ৩৩৪টি কেন্দ্রে দুই লাখ ৭৬ হাজার ২২৭ জন, রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের ১৮৪টি কেন্দ্রে এক লাখ ৭০৯ জন, কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের ১৭৫টি কেন্দ্রে এক লাখ ৯৭৪ জন, যশোর শিক্ষা বোর্ডের ২১২টি কেন্দ্রে এক লাখ ১৬ হাজার ৯০৫ জন, চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের ৯২টি কেন্দ্রে ৮০ হাজার ৬৯৩ জন, বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের ১০৯টি কেন্দ্রে ৫৬ হাজার ৬০০ জন, সিলেট শিক্ষা বোর্ডের ৭৫টি কেন্দ্রে ৫৮ হাজার ৬৩ জন, দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের ১৮২টি কেন্দ্রে ৯০ হাজার ৩৮১ জন, মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের ৪১৮টি কেন্দ্রে ৮৪ হাজার ৩৬০ জন, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের ৬২০টি কেন্দ্রে ৯৮ হাজার ২৪৭ জন, ডিআইবিএস-এ ১৮টি কেন্দ্রে চার হাজার ৩৪৪ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করছে।

– See more at: http://www.dhakatimes24.com/2015/04/01/60352/%E0%A6%B9%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%80%E0%A6%B0%E0%A6%BE-%E0%A6%AA%E0%A6%B0%E0%A7%80%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%B7%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%B8%E0%A7%82%E0%A6%9A%E0%A6%BF-%E0%A6%AC%E0%A6%A6%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%AA%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%AC%E0%A7%87-%E0%A6%A8%E0%A6%BE#sthash.511a8VXt.dpuf


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print