শনিবার , ২৩ জুন ২০১৮
মূলপাতা » প্রধান খবর » তাজমহল আসলে ‘শিব মন্দির’ : দাবি উগ্র হিন্দুদের

তাজমহল আসলে ‘শিব মন্দির’ : দাবি উগ্র হিন্দুদের

তাজমহলএবার তাজমহলকে শিব মন্দির দাবি করে রীতিমতো আদালতে হাজির হলো উগ্র হিন্দুরা। এত দিন দাবিটা ছিল মৌখিক। আরএসএস সহ গেরুয়া শিবিরের অনান্য গোষ্ঠীর নেতা নেত্রীরা মাঝে মাঝে এ দাবি ইতিউতি করে আসছিলেন। কিন্তু আবার আর শুধু মুখের কথা নয়, একে বারে আদালতের শরণাপন্ন! তাজমহল নাকি আদতে শিব মন্দির! অবিলম্বে তার আইনি স্বীকৃতি দেওয়া হোক। এই দাবিতে আরএসএসপন্থী ৬ আইনজীবী আগ্রা সিভিল কোর্টে মামলা ঠুকে দিলেন।

বর্তমানে তাজমহলের দেখভালের দায়িত্বে এখন আর্কিওলজিকাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার হাতে। হরি শঙ্কর জৈন ও আরও ৫ আইনজীবীর দাবি তাজমহলের আসল মালিক ঈশ্বর আগ্রেশ্বর মহাদেব। এই মোকদ্দমায় দাবি তাজমহলের সব সমাধি উড়িয়ে সেখানে বন্ধ হোক মুসলিমদের উপাসনার অধিকার, বদলে সেখানে চলুক হিন্দুদের শিব পুজো।

এখনও অযোধ্যায় রামজন্মভূমি সংক্রান্ত বিতর্কিত মামলা ঝুলে রয়েছে। এর মধ্যে আরও একটি ধর্ম সংক্রান্ত বিতর্কিত দাবিপূর্ণ মোকাদ্দমায় দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের আশঙ্কা করছেন অনেকে।

এই মোকাদ্দমায় তাজমহলের মূল ইমারতটিও (যেটিকে একটি মসজিদ হিসাবে বর্তমানে গণ্য করা হয়) তার সামনের অঞ্চল। পশ্চিম দিকে বাগানসহ মূল ইমারতের রেপ্লিকা সহ সমগ্র ৭৭ বিঘা জমির মালিকানা দাবি করা হয়েছে।

আইনজীবীদের দাবি এই সম্পতির মালিকানা দেবতার। এখানে নাকি বহু বহু যুগ আগে ঈশ্বর আগ্রেশ্বর মহাদেব নগ্নাথেশ্বর বাস করতেন। এই ল’স্যুটটিতে বলা হয়েছে ”এটি কোনও কবরস্থান নয়, কোনও দিন ছিলও না। এখানে কোনও প্রকৃত কবরই নেই। এই স্থানে হিন্দুদের পুজো ছাড়া বাকি সব কিছুই বেআইনি ও অসাংবিধানিক। হিন্দু আইন অনুযায়ী এই স্থানের মালিক পূজ্য দেবতা। এমন কী রাজারও অধিকার নেই ঈশ্বরের সম্পত্তি হস্তান্তর করার।”

সূত্র : জি-নিউজ।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print