সোমবার , ২৩ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » ফুটবল » ইয়েমেনে সৌদি আরবের বিমান হামলা

ইয়েমেনে সৌদি আরবের বিমান হামলা

yemen-attackedইয়েমেনের হুথি ঘাঁটিগুলোয় জোর হামলা চালিয়েছে সৌদি আরব ও মিত্র রাষ্ট্রগুলো।

সৌদি রাষ্ট্রদূতের ভাষ্য: বুধবার যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত আদেল আল যুবায়ের জানান, সৌদি আরবসহ ১০টি দেশ ইয়েমেনে এ হামলার জন্যে একীভূত হয়েছে এবং এতে প্রতিষ্ঠান হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে জিসিসি (গালফ কো-অপারেশন কাউন্সিল)। সৌদি আরব ছাড়া এর সদস্যরা হচ্ছে বাহরাইনন, কাতার, কুয়েত, ওমান, আরব আমিরাত। স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাতটা থেকে হুথি ঘাঁটিগুলোকে লক্ষ্য করে বিমানহামলা পরিচালিত হয়।

অভিযানের কারণ: আব্দেল আল যুবায়ের এ সামরিক অভিযানের স্বপক্ষে অবস্থান নিয়ে আরও বলেন, একটি বৈধ সরকারকে সমর্থন ও প্রতিরক্ষাকরণে এ অভিযান সূচিত হয়েছে। বিপরীতিক্রমে অবৈধ দখলদার হুথিদের প্রতিহত করার জন্যে এ আক্রমণ সংঘটিত হয়েছে।

বিমানহামলার ফলাফল: সশস্ত্র হুথিরা ইয়েমেনের রাজধানী সানা দখল করে অধিকার করেছে সেখানকার রাষ্ট্রীয় ভবন থেকে শুরু করে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন প্রশাসনিক অবকাঠামো। বুধবার হামলার অন্যতম লক্ষ্য ছিল ঐ সমস্ত অবকাঠামো। কার্যকর বিমানহামলার পর তিন হুথি নেতা আব্দুল খালেক বদরুদ্দিন আল হুথি, ইউসুফ আল মাদানি ও ইউসুফ আল ফিসি নিহত হয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

হুথি-প্রতিক্রিয়া: হুথিদের সঙ্গে গণমাধ্যমকর্মীরা যোগাযোগ করেছেন। জানা গেছে সম্মিলিত আরব বাহিনী সানার আল দুলাইমিতে হুথিদের সামরিক ঘাঁটি লক্ষ্য করে বিমানহামলা চালিয়েছে এবং হুথিরা বিমান ভূপাতিত করার কামান দেগে তার প্রত্যুত্তর দিয়েছে।

আমজনতার প্রতিক্রিয়া: তবে সাধারণ মানুষের উদ্বেগ নিয়ে ভাবার অবকাশ কারও নেই। ইয়েমের জনপ্রিয় দৈনিক ইয়েমের পোস্ট-এর সম্পাদক হাকিম আল মাসমারি জানিয়েছেন জনদুর্ভোগের কথা। জনগণ ভীষণ ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print