বুধবার , ২৫ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » প্রধান খবর » জালিয়াতি করে ৯০ কোটি তোলার সময় আটক ১১

জালিয়াতি করে ৯০ কোটি তোলার সময় আটক ১১

ব্র্যাক ব্যাংকেরব্যাংকের এফডিআরের নকল কাগজ এবং ভুয়া পাওয়ার অব অ্যাটর্নির সাহায্যে ৯০ কোটি টাকা উত্তোলন করতে গিয়ে ধরা খেলেন ১১ প্রতারক। রবিবার দুপুরে রাজধানীর গুলশানে ব্র্যাক ব্যাংকের একটি শাখায় এ ঘটনা ঘটে।

জালিয়াতির অভিযোগে আটককৃতরা হলেন হাসিবুল হাসান (৩৪), সিরাজুল ইসলাম (৩৪), সাব্বির রহমান (৪০), নজরুল হক (৪২), সাহাবুর রহমান বাবলু (৬৫), খোরশেদ আলম (৩৪), দেলোয়ার হোসেন (৪৫), সেলিম আহমেদ (৪৪), শাহাজান (৫২), কাজী মো. শাহাদাৎ হোসেন (৪০) ও মাহাবুর রহমান কাজল (৩৪)।
প্রতারক চক্রটিকে বর্তমানে থানা হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তাদের ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।
ব্র্যাক ব্যাংকের গুলশান শাখার ব্যবস্থাপক শেখ মো. আশরাফ বলেন, সাইফুল ইসলাম নামের এক আমেরিকা প্রবাসীর ব্যাংকে প্রায় শতকোটি টাকার একটি এফডিআর রয়েছে। দুপুরে দিকে তিন ব্যক্তি ব্যাংকে গিয়ে বলেন, এফডিআরটি তাদের ১১ জনের নামে পাওয়ার অব অ্যাটর্নি করে দিয়েছেন সাইফুল ইসলাম। তারা টাকা ওঠাতে এসেছেন।  এ সময় ব্যবস্থাপক টাকা উত্তোলন করতে হলে পাওয়ার অব অ্যাটর্নিতে নাম থাকা ১১ জনকেই প্রয়োজন বলে জানালে ১১ জন ব্যাংকে উপস্থিত হন।
এ সময় পাওয়ার অব অ্যাটর্নির কাগজ সন্দেহজনক মনে হওয়ায় পুলিশকে খবর দেয় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। পুলিশ এসে ১১ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।
ব্যবস্থাপক শেখ আশরাফ আরো বলেন, এফডিআরের পাওয়ার অব অ্যাটর্নির কাগজ ভুয়া প্রমাণিত হয়েছে। আসলে এরা একটি বড় প্রতারক চক্রের সদস্য।
গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, আমরা তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করছি। এ ঘটনায় থানায় মামলা হচ্ছে।
তিনি আরো বলেন, টাকার পরিমাণ ৮০ থেকে ৯০ কোটির মতো হবে। তাদের কাগজপত্র আমরা খতিয়ে দেখছি।

আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print