শনিবার , ২১ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » জাতীয় » শেখ হাসিনাকে মোদির চিঠি

শেখ হাসিনাকে মোদির চিঠি

Hasina-Modiভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশ সফরে আসার আগ্রহ প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চিঠি পাঠিয়েছেন। ঢাকায় সফররত দেশটির নতুন পররাষ্ট্র সচিব সুব্রাহ্মানিয়াম জয়শঙ্কর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করে চিঠিটি হস্তান্তর করেন।

সোমবার সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদ ভবনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে তাদের মধ্যে সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব এ কে এম শামীম চৌধুরী সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

শামীম চৌধুরী বলেন, ‘ভারতের পররাষ্ট্র সচিব ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির একটি চিঠি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে হস্তান্তর করেছেন। চিঠিতে নরেন্দ্র মোদি বলেছেন- আমি আগ্রহের সঙ্গে অপেক্ষা করছি বাংলাদেশ সফরের জন্য। শেখ হাসিনাকেও ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়ে মোদি বলেছেন- আপনার সফরের জন্যও আগ্রহের সঙ্গে অপেক্ষা করছি।’

শামীম চৌধুরী আরো বলেন, ‘নরেন্দ্র মোদির চিঠি পাওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন- উনি (নরেন্দ্র মোদি) কবে আসবেন? আমরাও সেই অপেক্ষায় আছি। এসময় ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বলেছেন- শিগগিরই ভারতের প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ সফরে আসবেন।’

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব জানান, সাক্ষাৎকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্র সচিবের দুই দেশের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। এছাড়া যৌথভাবে যেসব কর্মসূচি বাস্তবায়ন হচ্ছে সেগুলো ভালোভাবেই হচ্ছে বলে পররাষ্ট্র সচিব সন্তোষ প্রকাশ করেন। বিশেষ করে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতের প্রকল্পগুলোর বাস্তবায়ন নিয়ে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব সন্তোষ প্রকাশ করেন।

সাক্ষাৎকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতে ত্রিপুরা পালাটানা বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে আরো বিদ্যুৎ চেয়ে বলেন, ‘আমরা পালাটানা থেকে আরো কিছু বিদ্যুৎ চাই।’ জবাবে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বলেছেন- ‘বিদ্যুৎ আসবে। বিদ্যুৎ খাতে দু’দেশের বেসরকারি উদ্যোক্তাদের কাজে লাগানো যেতে পারে। ভুটান থেকে ভারত হাইড্রোলিক পাওয়ার প্ল্যান্ট থেকে বিদ্যুৎ আনার উদ্যেগ নিয়েছে। ভুটান যদি আরো বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে পারে তাহলে বাংলাদেশও সেখান থেকে আনতে পারে।’

এছাড়া অচিরেই ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে দু’টি চুক্তি স্বাক্ষর হবে। ভারতের সঙ্গে দু’টি নতুন চুক্তি করা হবে বলেও শামীম চৌধুরী নিশ্চিত করেছেন। এ চুক্তির মধ্যে রয়েছে ট্রেড প্রোটকল, অপরটি ক্রোস্টাল শিপিং।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গহর রিজভী, দিল্লীতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী, ঢাকায় নিযুক্ত ভারতের হাই কমিশনার পঙ্কজ শরণ প্রমুখ।

ভারতের পররাষ্ট্র সচিব সুব্রাহ্মানিয়াম জয়শঙ্কর এর আগে বিকেলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। তার আগে সচিব পর্যায়ে একটি বৈঠক করেন।

সার্ক যাত্রার অংশ হিসেবে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব জয়শঙ্কর দুই দিনের শুভেচ্ছা সফরে বাংলাদেশে এসেছেন। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন তিনি।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print