বৃহস্পতিবার , ১৬ আগস্ট ২০১৮
মূলপাতা » টেনিস » ৭ মার্চে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আ’লীগের জনসভা

৭ মার্চে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আ’লীগের জনসভা

AL_7-Marchঐতিহাসিক ৭ মার্চ রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা করবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সোমবার বিকেলে এক যৌথসভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ।

ঢাকা মহানগর অন্তর্ভুক্ত আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সহযোগী, ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকদের সঙ্গে দলটির কেন্দ্রীয় নেতাদের জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালন করার লক্ষ্যে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বিভিন্ন কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। তার মধ্যে সকাল ৭টায় ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি। এরপর বিকেল ৩টায় রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা অনুষ্ঠিত হবে। এই জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, নবম সংসদ নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াত জোট ৩০ শতাংশ ভোট পেয়েছে। তাদের লক্ষ লক্ষ কর্মী বাহিনী রয়েছে। তারা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়লে তাদেরকে দমন করতে কিছুটা সময়ের প্রয়োজন। সহিংসতা ইতিমধ্যে কিছুটা কমে এসেছে। দেশের জনগণ সাহায্য অব্যহত রাখলে শীঘ্রই সহিংতা বন্ধ হয়ে যাবে।

হানিফ বলেন, মানুষ পুড়িয়ে মারা কোনো রাজনৈতিক আন্দোলন নয়। এটা হচ্ছে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড। বিএনপি-জামায়াত ইতিমধ্যে সারা দেশে জঙ্গী সংগঠন হিসেবে বিবেচিত হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি উঠেছে সারাদেশে।

সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের জন্য বিএনপিকে নিষিদ্ধ করা হবে কী না—এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, প্রথম কাজ হচ্ছে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড বন্ধ করা। তারপর জনগণ এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, ডা. দিপু মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম, বিএম মোজাম্মেল হক, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, কার্যনির্বাহী সদস্য সুজিত রায় নন্দী, এস এম কামাল, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ আজিজ, যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সহিদ সেরনিয়াবাত, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা অ্যাডভোকেট আবু কাওছার, সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথ, ছাত্রলীগের সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগ, সিদ্দিকী নাজমুল আলম, ঢাকা মহানগর যুবলীগ দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্র্রাট, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, যুবলীগ উত্তরের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন প্রমুখ।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print