সোমবার , ১৬ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » ক্রিকেট » চার দিনের টেস্ট, ৪০ ওভারের বিশ্বকাপ!

চার দিনের টেস্ট, ৪০ ওভারের বিশ্বকাপ!

টেস্টটেস্ট ম্যাচ পাঁচ দিনের। এই রীতি ৩০ বছর ধরে প্রচলিত। এবার সেই প্রচলিত রীতি ভেঙে নতুন নিয়মে টেস্ট চালুর প্রস্তাব আনা হয়েছে।

প্রস্তাব আনা হয়েছে বিশ্বকাপ ক্রিকেট ৪০ ওভারে করারও। আর এই প্রস্তাব দুটি এনেছে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড। আইসিসি বিষয়টি প্রাথমিকভাবে গ্রহণ করেছে। এখন আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি গৃহীত অথবা বাতিল হবে।

টেস্ট ক্রিকেট নিয়মিতভাবে ১৯৭৯ সাল থেকে পাঁচ দিনের হয়ে আসছে। কিন্তু ব্যতিক্রম হিসেবে ছিল কানপুরে অনুষ্ঠিত ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ভারতের একটি টেস্ট। যেটা হয়েছিল ছয় দিনে। ১৯৭৩ সালে অকল্যান্ডে নিউজিল্যান্ড ও পাকিস্তানের মধ্যকার টেস্টটি হয়েছিল চার দিনে।

অবশ্য এ প্রস্তাব ইংল্যান্ডের বাস্তবতা বিবেচনা করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এটা গৃহীত হতে হলে আইসিসির সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনা ও পর্যালোচনার মাধ্যমে যেতে হবে।

তবে ধারণা করা হচ্ছে, আইপিএল ও বিগ ব্যাশের মতো ইপিএলকে জনপ্রিয় করে তুলতেই এমন প্রস্তাব দিয়েছে ইংল্যান্ড। এই প্রস্তাবের পাশাপাশি ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের ঘরোয়া ক্রিকেটের ব্যাপক রদবদলেরও প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

এ সম্পর্কে বিস্তারিত অক্টোবরে প্রকাশ করা হবে। চলতি বিশ্বকাপ ৫০ ওভারে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ২০১৯ বিশ্বকাপ ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হবে। তবে ৪০ ওভারের ক্রিকেট হয়তো রাতারাতিই চালু করা সম্ভব হবে না।

ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের পরিকল্পনা হলো ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগকে সবচেয়ে শক্তিশালী টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে পরিণত করা। আর সেটা করতে পারলে আইপিএল ও বিগ ব্যাশের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে দাঁড়াতে পারবে ইপিএল।

ইতিমধ্যে এই প্রস্তাবের বিরোধিতা শুরু করেছে তিন মোড়লের দুই মোড়ল ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড শেষ পর্যন্ত এই প্রস্তাব আইসিসিতে পাস করাতে পারবে কি না, তা এখনই বলা যাচ্ছে না।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print