বৃহস্পতিবার , ১৯ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » চাকরি » এক নিবন্ধনে সৌদি আরব: শ্রমমন্ত্রী

এক নিবন্ধনে সৌদি আরব: শ্রমমন্ত্রী

শ্রমকাজ নিয়ে বিদেশে যেতে আগ্রহী লোকজনকে দালালদের কাছে না যাওয়ার জন্য আবারও সতর্ক করলেন প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন। সৌদি আরব যেতে আলাদা করে কোনো নিবন্ধনেরও প্রয়োজন নেই বলেও জানিয়েছেন তিনি।
সৌদি আরবসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কর্মী গমনের নিবন্ধন প্রক্রিয়াসহ সার্বিক বিষয়ে আজ মঙ্গলবার প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন মন্ত্রী। এ সময় প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব খন্দকার মো. ইফতেখার হায়দার এবং জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) মহাপরিচালক শামছুন নাহারসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘নিবন্ধন ছাড়া এখন বাংলাদেশ থেকে কেউ কোনো দেশে কাজের জন্য বিদেশে যেতে পারবে না। কেউ যদি বলে আমাকে টাকা দেন, আমি পাঠাব, তা বিশ্বাস করবেন না। এর পরও কেউ যদি অতি উৎসাহী হয়ে দালালকে টাকা দেয়, তাহলে আমাদের কিছু করার নেই।’
চলতি মাসের ১০ তারিখ কর্মী পাঠানোর বিষয়ে সৌদি আরবের সঙ্গে চুক্তি হয়। এর আগে বিএমইটি থেকে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে সৌদি আরবে যাওয়ার জন্য নিবন্ধনের বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়। হরতাল-অবরোধের মধ্যেই দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বিদেশে যেতে আগ্রহীরা প্রবাসীকল্যাণ ভবনে জড়ো হতে শুরু করেন নিবন্ধনের জন্য। এ নিয়ে বিশৃঙ্খলাও ঘটে। এ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেখেই মানুষজনের মধ্যে বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে। মানুষ তো ঠেকে শেখে, আমরাও শিখলাম’।

সৌদি আরবে পাঠাতে আলাদা করে কোনো নিবন্ধন এখনো হচ্ছে না জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, বিদেশে যাওয়ার জন্য নিবন্ধন কার্যক্রম দেশের সব জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিস, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার, পৌর ডিজিটাল সেন্টার এবং নগর ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে চলছে এবং সারা বছর চালু থাকবে।

বিদেশ গমনেচ্ছু নিবন্ধিত ২২ লাখ কর্মীর ডেটাবেজ সরকারের কাছে রয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, সৌদি আরব প্রাথমিকভাবে নারী গৃহকর্মী নেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তবে এখনো তারা কোনো চাহিদাপত্র পাঠায়নি। চাহিদাপত্র পাঠালে এই নিবন্ধন থেকে যাওয়ার সুযোগ পাবেন। আর ডেটাবেইজে যোগ্য কর্মী না পাওয়া গেলে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ইউনিয়ন তথ্য সেবাকেন্দ্রের মাধ্যমে আলাদা নিবন্ধনের ব্যবস্থা করা হবে বলেও জানান মন্ত্রী।

চলতি মাসের ৯ থেকে ১২ তারিখ পর্যন্ত যেসব ফরম রেজিস্ট্রেশন ফি ছাড়া জমা নেওয়া হয়েছে তাদের সাত দিনের মধ্যে টেলিটকের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন কাজ সম্পন্ন করার জন্য স্ব স্ব মোবাইল নম্বরে এসএমএস পাঠানো হবে বলে জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print