বুধবার , ২০ জুন ২০১৮
মূলপাতা » প্রধান খবর » সুপ্রীম কোর্টে ১১ নতুন পদ সৃষ্টির সুপারিশ

সুপ্রীম কোর্টে ১১ নতুন পদ সৃষ্টির সুপারিশ

হাইকোর্টেসুপ্রীম কোর্টে রেজিস্ট্রার জেনারেল ও আপিল বিভাগের একজন রেজিস্ট্রারসহ ১১টি নতুন পদ সৃষ্টির সুপারিশ করা হয়েছে।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা স্বাক্ষরিত সুপারিশটি সম্প্রতি আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে বলে সুপ্রীম কোর্টের রেজিস্ট্রার কার্যালয় সূত্র নিশ্চিত করেছে।

নতুন পদগুলো হলো- একজন রেজিস্ট্রার জেনারেল, একজন আপিল বিভাগের রেজিস্ট্রার, একজন রেজিস্ট্রার জেনারেলের একান্ত সচিব, দুইজন রেজিস্ট্রার জেনারেল ও আপিল বিভাগের রেজিস্ট্রারের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা, দুইজন ড্রাইভার ও চারজন অফিসিয়াল কর্মচারী।

সুপারিশে বলা হয়েছে, সর্বোচ্চ আদালতের প্রশাসনিক কাজ সুষ্ঠুভাবে করার জন্য নতুন এই পদগুলো দরকার। একই সঙ্গে আদালতের কাজের গতি বাড়ানো ও বিচারপ্রার্থীদের সুবিধার্থে পদগুলো সৃষ্টির জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ করা হয়েছে।

নতুন এই পদগুলো সৃষ্টি হলে সুপ্র্রীম কোর্টের বর্তমান রেজিস্ট্রার হবেন রেজিস্ট্রার জেনারেল। বর্তমানে সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের জন্য একজন আলাদা রেজিস্ট্রার রয়েছেন। কিন্তু আপিল বিভাগের জন্য আলাদাভাবে কোনো রেজিস্ট্রার নেই।তবে সুপ্রীম কোর্টের রেজিস্ট্রারই বর্তমান সময়ে উভয় বিভাগের (হাইকোর্ট ও আপিল) কার্যক্রম দেখভাল করেন।

রেজিস্ট্রার সূত্র জানায়, প্রধান বিচারপতির স্বাক্ষরিত সুপারিশটি আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। আইন মন্ত্রণালয় সুপারিশটি অনুমোদন করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পাঠাবেন। এরপর সেটি অর্থ মন্ত্রণালয় হয়ে আবার জনপ্রশাসন ও আইন মন্ত্রণালয়ে আসবে। এরপর নতুন পদ সৃষ্টি হবে।

রেজিস্ট্রার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে বর্তমানে প্রায় দুই হাজার একশ’ কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছেন। একই সঙ্গে হাইকোর্টে অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার রয়েছেন দুইজন। ডেপুটি রেজিস্ট্রার আছেন আটজন। এরমধ্যে তিনজন বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তা ও বাকি পাঁচজন পদোন্নতিপ্রাপ্ত হয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত। সহকারী রেজিস্ট্রার রয়েছেন ১১ জন। এর মধ্যে পাঁচজন বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তা ও ছয়জন পদোন্নতিপ্রাপ্ত হয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত।

এছাড়া আপিল বিভাগে অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার একজন, ডেপুটি রেজিস্ট্রার একজন ও সহকারী রেজিস্ট্রার হিসেবে তিনজন কর্মরত।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print