সোমবার , ১৬ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » জ্ঞান-বিজ্ঞান » ৫০ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা!

৫০ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা!

indexআপনি যদি ক্যাননের নতুন ইওএস ৫ ডিএস ক্যামেরায় ছবি তুলতে চান তবে বেশি তথ্য ধারণ ক্ষমতার এসডি কার্ড কিনতে হবে। কেননা সম্প্রতি ক্যানন ঘোষণা দিয়েছে ৫০ দশমিক ৬ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।
আজ শুক্রবার ক্যানন দাবি করেছে, তাদের নতুন ৫ ডিএস ও ৫ ডিএসআর নামের দুটি মডেলের এই ক্যামেরা ডিজিটাল এসএলআর ৩৫ মিলিমিটার ফুল-ফ্রেম সেন্সর ক্যামেরার মধ্যে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি রেজুলেশনের ক্যামেরা।
সিএমওএস সেন্সর হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বী নাইকনের ডি৮১০ এর ৩৬ মেগাপিক্সেল ও স্যামসাংয়ের এনএক্স ১ এর ২৮ মেগাপিক্সেলকে ছাড়িয়েছে ক্যাননের এই ক্যামেরা।
জুন মাস থেকে ৫ ডিএসের বডি তিন হাজার ৬৯৯ মার্কিন ডলার ও ৫ ডিএসআরের বডি তিন হাজার ৮৯৯ মার্কিন ডলারে পাওয়া যাবে।
সৌখিন ও পেশাদার আলোকচিত্রীদের লক্ষ্য করে এই ক্যামেরা বাজারে আনা হচ্ছে বলে দাবি করেছে।
ক্যাননের প্রধান কার্যালয় জাপানের টোকিওতে প্রতিষ্ঠানটির মুখপাত্র রিচার্ড বার্গার বলেছেন, ‘ছবি তোলার দক্ষতা বাড়াতে ক্যামেরায় যুক্ত হয়েছে ডুয়াল ডিআইজিআইসি ৬ ইমেজ প্রসেসর, মিরর ভাইব্রেশন নিয়ন্ত্রন সিস্টেম যা ক্যামেরা নড়ে যাওয়া কমাতে পারে। ছবি বেশি রেজুলেশনে উঠবে বলে ছবি ক্রপ করা হলেও ছবির ডিটেইল ক্ষতিগ্রস্ত হবে না। ’
ক্যামেরায় ফিচার হিসেবে থাকবে ৬১ পয়েন্ট অটোফোকাস অ্যারে যাতে প্রতি সেকেন্ডে ৫ ফ্রেম ছবি তোলা যাবে এবং সর্বোচ্চ আইএসও হবে ১২ হাজার ৮০০ । ছবির ডিটেইল পাওয়ার জন্য এতে থাকছে ফাইন ডিটেইল মোড। ইওএস ক্যামেরায় প্রথমবারের মতো যুক্ত হচ্ছে টাইমস ল্যাপস মুভি ফাংশন যাতে স্থির চিত্র দিয়ে স্বয়ংক্রিয়ভাবে দুই মিনিটের বেশি ফুল এইচডি মুভি তৈরি করা যাবে।
জনপ্রিয় মিডরেঞ্জ ও হাই-এন্ড ডিজিটাল এসএলআর হিসেবে রেবেল লাইনে নতুন দুটি মডেল যুক্ত করছে ক্যানন। টি৬ এস ও টি৬ আই নামের এই ক্যামেরায় থাকবে ২৪.২ মেগাপিক্সেলের এপিএস-সি ইমেজ সেন্সর, ওয়াই-ফাই ও এনএফসি সুবিধা। এ বছরের এপ্রিল মাস নাগাদ ৮৪৯ ও ৭৪৯ মার্কিন ডলার দামে এই দুটি মডেল বাজারে আসবে।
ক্যামেরা বডি ছাড়াও ইএফ ১১-২৪ মিমি এফ ফোর এল ইউএসএম জুম লেন্সের ঘোষণা দিয়েছে ক্যানন। পরিবর্তনযোগ্য লেন্স ক্যামেরার মধ্যে এই লেন্সে সবচেয়ে বেশি প্রসস্থ ভিউ অ্যাংগেল থাকবে বলে ক্যাননের দাবি। ইওএস ক্যামেরায় এটি ব্যবহার করা যাবে। এই লেন্সের নাম হবে ‘এল’ বা লাক্সারি। ফেব্রুয়ারি মাস থেকে দুই হাজার ৯৯৯ মার্কিন ডলার দামে এই লেন্সটি কেনা যাবে।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print