মঙ্গলবার , ২৪ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » প্রধান খবর » অস্ট্রেলিয়া শিরোপার বড় দাবিদার

অস্ট্রেলিয়া শিরোপার বড় দাবিদার

ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকা অস্ট্রেলিয়া প্রতিপক্ষ ভারত-ইংল্যান্ডের সঙ্গে অপরাজিত হিসেবে ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা জিতে রয়েছে ‘দুর্দান্ত’ ফর্মে। ফলে আসন্ন বিশ্বকাপের সহযোগী আয়োজকরা অনুমিতভাবে ফেভারিট হিসেবেই পঞ্চম বিশ্বকাপ শিরোপার জন্য মাঠে নামবে।

বিশ্বের সবচেয়ে ‘ভয়ঙ্কর’ পেসার মিশেল জনসন এবং ক্যারিয়ারের ‘স্বর্ণালি’ সময় কাটাতে থাকা স্টিভেন স্মিথের উপস্থিতিতে ব্যাট-বল ও ফিল্ডিংয়ের বর্তমানে বিশ্বের সেরা দল নিয়েই মাঠের লড়াইয়ে নামতে যাচ্ছে অসিরা।
অস্ট্রেলিয়ার দলে রয়েছে ডেভিড ওয়ার্নার, শেন ওয়াটসন, মিশেল জনসন ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের মতো ম্যাচ-উইনাররা; যারা এক ঝলতে ম্যাচের দৃশ্যপট পাল্টে দিতে পারেন। ফলে আত্মবিশ্বাসের কমতি নেই রেকর্ড চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার।

 

ব্যাটিংয়ে শুরু থেকে ‘ঝড়’ তোলার জন্য ডেভিড ওয়ার্নারের সঙ্গে রয়েছেন অ্যারন ফিঞ্চ। ক্লার্ক ফিট হয়ে উঠলে মিডল-অর্ডারে তার সঙ্গে থাকবেন স্টিভেন স্মিথ। শেষের দিকে দ্রুত রান তোলার জন্য রয়েছেন ‘বিগ-হিটার’ ম্যাক্সওয়েল। মিশেল মার্শ ও ব্রাড হাডিনের মতো পরীক্ষিত সেনারা দলের ‘বিপর্য য়’ সামলানোর জন্য রয়েছেন প্রস্তুত।

বোলিংয়ে গতি, বাউন্স, ইয়র্কার ও সুইংয়ের মাধ্যমে শুরুতে ব্যাটসম্যানদের মনে ‘ভীতি’ ছড়ানোর জন্য রয়েছেন মিশেল জনসন। গতি ও বাউন্সে ব্যাটসম্যানদের বিভ্রান্ত করতে তৈরি করতে রয়েছেন পেট কামিন্স ও মিশেল স্টার্ক। স্পিনে রয়েছেন ডোহার্টি।

এদিকে ইনজুরির কারণে দলের নিয়মিত অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক টুর্নামেন্টের শুরু থেকে খেলতে পারবেন না বলে জানা যায়। তবে তার অনুপস্থিতি দলকে খুব একটা চিন্তায় ফেলবে না বলে ক্রিকেটবোদ্ধাদের ধারণা।

image_116456_0আগামী ২১ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ফিটনেস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার জন্য  ক্লার্ককে সময় বেঁধে দিয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)।তবে ফিটনেস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে ক্লার্ক দলে ফিরবেন বলে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) আশাবাদী।

এদিকে ক্লার্ক যদি নির্দিষ্ট সময়ে দলে ফিরতে না পারেন তবে অস্ট্রেলিয়াকে নেতৃত্ব দিবেন জর্জ বেইলি।

আবার এক্ষেত্রে অনেকের পছন্দ ক্যারিয়ারের স্বর্ণালি সময় কাটানো স্টিভেন স্মিথ। গত ১০টি টেস্ট ও ওয়ানডেতে মোট ছয়টি সেঞ্চুরি করেছেন তিনি।

এদিকে দলের অলরাউন্ডার জেমস ফকনারের ইনজুরি কিছুটা ভাবাচ্ছে অস্ট্রেলিয়াকে। ইনজুরির কারণে টুর্নামেন্টের শুরু থেকে ফকনারের সেবা পাচ্ছে না অসিরা। তবে দলে একঝাঁক ‘দুর্দান্ত’ খেলোয়াড়দের ভীড়ে এটা খুব একটা ভাবাচ্ছে না অসিদের।

অস্ট্রেলিয়ার স্কোয়াড়ে শুধু একটি ঘাটতি রয়েছে; আর সেটি হলো দলে কোনো বিশেষজ্ঞ স্পিনার নেই। ফলে পার্ট-টাইম স্পিনারদের ওপর নির্ভর করতে হবে টুর্নামেন্টের সহযোহী আয়োজকদের। দলে স্পিনার বলতে রয়েছেন জাভিয়ের ডোহার্টি।
.
অস্ট্রেলিয়া চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন। ১৯৮৭ সালের বিশ্বকাপ থেকেই প্রতিটি টুর্নামেন্টে অসিরা ফেভারিট হিসেবে মাঠে নামে। বর্তমান দলটি নিজেদের দিনে যে কোনো দলকেই হারিয়ে দিতে সক্ষম।

১৯৯৯, ২০০৩ ও ২০০৭- এই তিন বিশ্বকাপে টানা ২৯ ম্যাচ জিতে বিশ্বরেকর্ড গড়া অস্ট্রেলিয়া ২০১১ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ১৯৯৬ বিশ্বকাপের পর প্রথম পরাজয়ের মুখ দেখে। অস্ট্রেলিয়া যেই ‘দুর্দান্ত’ ফর্মে রয়েছে এই বিশ্বকাপে তারা যদি অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয় তবে অবাক হওয়ার কিছুই থাকবে না।   -ক্রিকইনফো ও এনডিটিভি


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print