মঙ্গলবার , ১৭ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » সাম্প্রতিক খবর » আদিবাসী নারী ও শিশুদের ওপর সহিংসতা বেড়েই চলেছে

আদিবাসী নারী ও শিশুদের ওপর সহিংসতা বেড়েই চলেছে

 

B-A-N-N-PRESS-in_76673জবি সংবাদদাতা ॥ আদিবাসী নারী ও শিশুদের ওপর সহিংসতার ঘটনা বেড়েই চলেছে। প্রতি বছরই এর মাত্রা ক্রমবর্ধমান। ধর্ষণ ও শারীরিক লাঞ্ছনার ঘটনা ঘটছে সবচেয়ে বেশি। ২০১৩ সালের চেয়ে ২০১৪ সালে সহিংসতার হার বেড়েছে প্রায় দেড় গুণ।
আদিবাসী নারী ও শিশুদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের দাবিতে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য তুলে ধরেন বাংলাদেশ আদিবাসী নারী নেটওয়ার্ক। শনিবার বেলা ১২টার দিকে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির গোলটেবিল মিলনায়তনে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন তারা।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন আয়োজক সংগঠনের যুগ্ম আহবায়ক চৈতালী ত্রিপুরা। তিনি জানান, ২০১২ সালে ৭৫ জন, ২০১৩ সালে ৬৭ জন এবং ২০১৪ সালে ১১৭ জন আদিবাসী নারী ও শিশুদের ওপর সহিংসতা চালানো হয়। লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো জানান, মোট জনসংখ্যার মধ্যে নারী ও শিশুদের ওপর সহিংসতার ঘটনা ঘটলেও তুলনামূলকভাবে এর হারটা আদিবাসী নারী ও শিশুদের ক্ষেত্রে অনেক বেশি। দেশে মোট জনসংখ্যার ১.২ শতাংশ আদিবাসী হয়েও তাদের ওপর সহিংসতার হার ১২ শতাংশ। তাই এটা খুবই উদ্বেগের বিষয়।
উন্মুক্ত আলোচনায় বক্তারা উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, সহিংসতার মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় আদিবাসী নারী ও শিশুরা চরম নিরপত্তাহীনতায় রয়েছেন। বিশেষ করে পার্বত্য চট্টগ্রামসহ তিনটি জেলায় এসব ঘটনা বেশি ঘটছে। সরকার ও সুশীল সমাজের সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বানও জানান বক্তারা। এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সহ সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রাখি দাস, কাপেং ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক পল্লব চাকমা, আয়োজক সংগঠনের সদস্য সচিব চঞ্চনা চাকমা, সদস্য পার্বতী রায়, সুজয়া ঘাগ্রা, সিলভিয়া খিয়াং প্রমুখ।

 


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print