বৃহস্পতিবার , ১৯ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » ক্রিকেট » বিশ্বকাপ যাত্রা আজ

বিশ্বকাপ যাত্রা আজ

untitled-14_114034-375x250নিবিড় অনুশীলন ও লক্ষ্য নির্ধারণ- সবই হয়েছে। নিবেদনের প্রতিশ্রুতিও দেয়া সারা। এখন শুধু বিমানে ওঠা বাকি। আজ রাতে সেই বিমানযাত্রা। এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে ১৬ কোটি মানুষের প্রত্যাশা নিজেদের সঙ্গে নিয়ে যাচ্ছেন ক্রিকেটাররা।

বাংলাদেশের বিশ্বকাপ যাত্রা আজ। ১৪ ফেব্রুয়ারি  শুরু হবে ২০১৫ আইসিসি অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বিশ্বকাপ। ১৮ ফেব্রুয়ারি আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বাংলাদেশ তাদের বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে।

বাংলাদেশ বিশ্বকাপ দল আজ রাত ৯টা ৫ মিনিটে ঢাকা ছাড়বে। দুবাইয়ে ঘণ্টা দুয়েক যাত্রা বিরতির পর সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত ১২টা ৩০ মিনিটে ব্রিসবেনে পৌঁছার কথা বাংলাদেশ দলের। ১৩ জন খেলোয়াড়, কোচ, কর্মকর্তা মিলিয়ে দলে রয়েছেন ২২ জন। সাকিব আল হাসান অস্ট্রেলিয়াতেই রয়েছেন। ১৫ সদস্যের বিশ্বকাপ দলের মধ্যে তামিম ইকবাল আজ যাচ্ছেন না। তিনি আগামীকাল সকাল ১০টায় অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশে ঢাকা ছাড়বেন।

বিশ্বকাপের জন্য হোম কন্ডিশনে বাংলাদেশ দলের অনুশীলন শুরু হয়েছিল ১২ জানুয়ারি। শেষ হয় ২২ জানুয়ারি। বুধবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে তার শুভেচ্ছা পেয়েছেন ক্রিকেটাররা।

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে ও অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা বিশ্বকাপে নিজেদের স্বপ্নের কথা জানিয়েছেন। দেশ ছাড়ার আগে ক্রিকেটাররাও নিজেদের ব্যক্তিগত লক্ষ্যের কথা বলেছেন। ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় মঞ্চে সবাই নিজেদের সেরাটা দিতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

কোচ জানিয়েছেন, কোয়ার্টার ফাইনালে উঠতে পারলেই তিনি খুশি হবেন। তবে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠাও কঠিন বলে মনে করেন অধিনায়ক। তবে মাশরাফি বলেন, ‘সব দলকেই হারানো সম্ভব।

অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনের কথা বারবার আলোচনায় এসেছে। অস্ট্রেলিয়া সফরে বাংলাদেশ দলের প্রথম লক্ষ্য কন্ডিশনের সঙ্গে মনিয়ে নেয়া। বাংলাদেশ দল শুরুতে ব্রিসবেনে ক্যাম্প করবে। সেখানেই কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার চেষ্টা করবেন ক্রিকেটাররা।

দেশের মাটিতে পাথরের উইকেটে ব্যাটিং ও বোলিং অনুশীলন করেছেন ক্রিকেটাররা। শেষদিকে রান তাড়া করে জেতার লক্ষ্য, বড় বাউন্ডারিতে কীভাবে বেশি রান নেয়া যায়, পেস ও স্পিন বোলিং কম্বিনেশন কীভাবে কাজে লাগানো যায়- এ নিয়েও মিরপুরে পরীক্ষা করেছেন কোচ।

অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশ চারটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে। এর মধ্যে আয়ারল্যান্ড ও পাকিস্তানের বিপক্ষেও দুটি ম্যাচ রয়েছে। বিশ্বকাপ শুরু হবে ১৪ ফেব্রুয়ারি। বাংলাদেশের বিশ্বকাপ শুরু হবে ১৮ ফেব্রুয়ারি, আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে।

– See more at: http://www.protikhon.com/%e0%a6%ac%e0%a6%be%e0%a6%82%e0%a6%b2%e0%a6%be%e0%a6%a6%e0%a7%87%e0%a6%b6-%e0%a6%a6%e0%a6%b2%e0%a7%87%e0%a6%b0-%e0%a6%ac%e0%a6%bf%e0%a6%b6%e0%a7%8d%e0%a6%ac%e0%a6%95%e0%a6%be%e0%a6%aa-%e0%a6%af/#sthash.VXn7sNy2.dpuf


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print