বৃহস্পতিবার , ১৯ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » জাতীয় » সহিংসতা থামাতে জাতিসংঘের আহ্বান

সহিংসতা থামাতে জাতিসংঘের আহ্বান

dinkhon2বাংলাদেশে যে সহিংসতা চলছে সে ব্যপারে উদ্বেগ প্রকাশ করে সংঘাত থামানোর আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশন।

আজ শুক্রবার সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনের মুখপাত্র রাবিনা সামদ্মানি এ আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের বড় দুই রাজনৈতিক দল শান্তিপূর্ণভাবে তাদের বিরোধ মেটাতে ব্যর্থ হওয়ার পর সহিংসতা বাড়ছে। এটা খুবই উদ্বেগজনক।’

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের এক বছরপূর্তিতে ৫ জানুয়ারি রাজধানী ঢাকায় সমাবেশের ঘোষণা দিলে ৩ জানুয়ারি রাতে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে তার রাজনৈতিক কার্যালয়ে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। ৫ জানুয়ারিতে খালেদা জিয়া অনির্দিষ্টকালের অবরোধের ডাক দেন। এ অবরোধের মধ্যে রংপুরের একটি বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনায় শিশুসহ পাঁচজন পুড়ে মারা যাওয়ানহ ২৪ জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসনের এক উপদেষ্টার গাড়ীতে আগুন ও গুলি চালানো হয়েছে। এরই প্রেক্ষিতে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশন এসব কথা বলল।

রাবিনা সামদ্মানি বলেন, শক্তিপ্রয়োগ ও সহিংসতার কারণে বাংলাদেশে যে অবস্থার বিরাজ করছে তা দিন দিন আরও গভীর সংকটের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। এ কারণে ইতিমধ্যে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনের মুখপাত্র আরও বলেন, ‘গত কয়েকদিনে যত নিহতের ঘটনা ঘটেছে এতে সরকার বা সরকারের বাইরে যারাই এসব ঘটনার পেছনে থাক না কেন তার নিরপেক্ষ ও কার্যকর তদন্তের উদ্যোগ নিন।’ সহিংসতা বন্ধ করে সব রাজনৈতিক দলের প্রতি সংযম প্রদর্শনেও আহ্বান জানান তিনি।

বিরোধী রাজনৈতিক দলের গ্রেপ্তারকৃত নেতাদের আটকের ক্ষেত্রে সরকার যেন ‘স্বেচ্ছাচারিতার’ আশ্রয় না নেন এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নেওয়া পদক্ষেপগুলোতে যেন আন্তর্জাতিক আইনের লংঘন না ঘটে সেজন্যে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাবিনা সামদ্মানি। সূত্র: ইউএন নিউজ সেন্টার।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print