বৃহস্পতিবার , ১৯ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » বিনোদন » দীপিকা যদি ক্যাটরিনা হয়

দীপিকা যদি ক্যাটরিনা হয়

ক্যাটরিনাসত্যিকারের প্রেম নাকি পুরোনো হয় না! সঙ্গী যদি শত্রুর সঙ্গে ঘর বাঁধে, তবুও মন থেকে তার ভালো চাইতে হয়। দীপিকা কী তা-ই চাইলেন?
অনেক দিন আগেই চুকেবুকে গেছে দীপিকা পাড়ুকোন আর রণবীর কাপুরের প্রেমের সম্পর্ক। রণবীরের জীবনে দীপিকার পরে এসেছেন ক্যাটরিনা কাইফ। রণবীরের সঙ্গে এখন ক্যাটরিনার বিয়ের কথা চলছে। এই জুটি কোনোরকম সম্পর্কের কথা অস্বীকার করলেও ভারতের গণমাধ্যমে জোর গুঞ্জন, গত বছরেই আংটি বদল সেরে ফেলেছেন ক্যাট-রণবীর। এ বছর বসবেন বিয়ের ছাদনাতলায়। ক্যাট-রণবীরের যখন মধু বসন্ত তখন কেমন কাটছে দীপিকার। তাঁর কানেও নিশ্চয়ই গেছে সাবেক প্রেমিকার এই ঘর বাঁধার খবরটি। তবে কী তিনি জ্বলেপুড়ে মরছেন! কী ভাবছেন তিনি? রণবীর-ক্যাটের কোনো কথা শুনতে চাই না কিংবা তারা চুলোয় যাক! নাকি ক্যাটরিনার উচিত নয় রণবীরকে বিয়ে করা! চলুন আসল কথা শোনা যাক তাঁর মুখ থেকেই।
১১ জানুয়ারি মুম্বাইয়ে স্টার গিল্ড অ্যাওয়ার্ডে সবাইকে হতবাক করেই দীপিকা বললেন, তিনি যদি ক্যাটরিনা হতেন, তবে তিনি রণবীরকেই চাইতেন। অনুষ্ঠানে নতুন বছরের প্রত্যাশা হিসেবে দীপিকার কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল, তিনি যদি ক্যাটরিনা হতেন, এ বছর কী চাইতেন তিনি? দীপিকার সোজা-সাপটা জবাব, ‘বিয়ে করতাম রণবীরকে।’
জবাবটা কী মন থেকেই চাওয়া নাকি ক্যাটরিনাকে খোঁচা মেরে দেওয়া তা দীপিকাই ভালো করে জানেন! এর আগে অবশ্য সাংবাদিকেরা দীপিকাকে প্রশ্ন করেছিলেন, দীপিকা যদি ক্যাটরিনাকে কোনো উপদেশ দেন, সেটা কী হবে? দীপিকা তখন বলেছিলেন, ‘ক্যাটরিনার জন্য আমার উপদেশ হবে রণবীরকে যেন বিয়ে না করেন!

তাহলে কী এই জুটির জন্য মনে মনে হিংসাই পুষে রেখেছেন দীপিকা? বিভিন্ন সময় রণবীর-ক্যাটের সম্পর্ক নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে দীপিকা প্রায়ই বলেন, ‘অল দ্য বেস্ট। ’
২০০৯ সাল পর্যন্ত দীপিকা-রণবীরের ঘনিষ্ঠতা ছিল। ওই বছরই রাজকুমার সন্তোষীর ‘আজব প্রেম কি গজব কাহানি’ ছবিতে জুটি বেঁধে রণবীর-ক্যাট অভিনয় করেন এবং দুজনের প্রেমের জোর গুঞ্জন ওঠে। দীপিকা সরে যান। কিন্তু বছরের পর বছর ধরে নিজেদের প্রেম নিয়ে লুকোচুরি খেলছেন ক্যাট-রণবীর। গত নভেম্বর মাসে মুম্বাইয়ের কার্টার রোডে একই বাড়িতে ওঠেন তাঁরা। মূলত এরপর থেকেই এ জুটি শিগগির বাগদান পর্ব সারবেন বলে খবর ডালপালা মেলছে।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print