রবিবার , ২২ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » প্রধান খবর » ‘অবরোধে পুলিশী নিরাপত্তা দেয়া হবে’

‘অবরোধে পুলিশী নিরাপত্তা দেয়া হবে’

কামালবিএনপির অনির্দিষ্টকালের অবরোধ কর্মসূচির পরিপ্রেক্ষিতে কঠোর নিরাপত্তায় সারাদেশে যানবাহন চলাচলের ব্যবস্থা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বিভিন্ন পরিবহন মালিকের সঙ্গে এ বিষয়ে জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠক শেষে প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, সারাদেশে বৃহস্পতিবার রাত থেকে যান চলাচল নির্বিঘ্ন করতে পুলিশের পাশাপাশি র্যা ব, বিজিবি, আনসার ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা নিরাপত্তা দেবে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বিভিন্ন পরিবহন মালিকের সঙ্গে এ বিষয়ে জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠক শেষে প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, সারাদেশে বৃহস্পতিবার রাত থেকে যান চলাচল নির্বিঘ্ন করতে পুলিশের পাশাপাশি র্যা ব, বিজিবি, আনসার ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা নিরাপত্তা দেবে।

তিনি বলেন, ‘যেকোনো মূল্যে আজ রাত (বৃহস্পতিবার) থেকে সড়ক, নৌপথ ও রেলপথে যানচলাচল শুরু করা হবে।’

বিএনপির ডাকা অর্নিদিষ্টকালের অবরোধে ঢাকার সঙ্গে সরাদেশের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এ অবস্থার মধ্য দিয়ে শুক্রবার শুরু হচ্ছে প্রথম দফার ইজতেমা।

বৈঠকে নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান ও স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা ও মালিক প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকের পর প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘পরিবহন মালিকদের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিয়েছি, সরাদেশে সর্বাত্মকভাবে পরিবহন চলাচল করবে। পরিবহন মালিকরা নিরাপত্তা চেয়েছেন। আমরা নিরাপত্তা দেব। বৈঠকে পুলিশ মহাপরিদর্শক, র্যা ব মহাপরিদর্শক, বিজিবি মহাপরিচালক, আনসার মহাপরিচালক, ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক ছিলেন। তাদের সঙ্গে আলোচনা করেছি সার্বিক নিরাপত্তার জন্য।’

নৌ-পরিবহন মন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (নিরাপত্তা) মোস্তাফা কামালউদ্দিন, পুলিশ মহাপরিদর্শক একেএম শহীদুল হক, র্যা বের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ, পুলিশ কমিশনার, বিজিবি মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার আজিজ অহমেদ, সংসদ সদস্য অসলামুল হক এবং সড়ক পরিবহন নেতারা উপস্থিত ছিলেন।/p>

তিনি বলেন, ‘যেকোনো মূল্যে আজ রাত (বৃহস্পতিবার) থেকে সড়ক, নৌপথ ও রেলপথে যানচলাচল শুরু করা হবে।’

বিএনপির ডাকা অর্নিদিষ্টকালের অবরোধে ঢাকার সঙ্গে সরাদেশের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এ অবস্থার মধ্য দিয়ে শুক্রবার শুরু হচ্ছে প্রথম দফার ইজতেমা।

বৈঠকে নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান ও স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা ও মালিক প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকের পর প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘পরিবহন মালিকদের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিয়েছি, সরাদেশে সর্বাত্মকভাবে পরিবহন চলাচল করবে। পরিবহন মালিকরা নিরাপত্তা চেয়েছেন। আমরা নিরাপত্তা দেব। বৈঠকে পুলিশ মহাপরিদর্শক, র্যা ব মহাপরিদর্শক, বিজিবি মহাপরিচালক, আনসার মহাপরিচালক, ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক ছিলেন। তাদের সঙ্গে আলোচনা করেছি সার্বিক নিরাপত্তার জন্য।’

নৌ-পরিবহন মন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (নিরাপত্তা) মোস্তাফা কামালউদ্দিন, পুলিশ মহাপরিদর্শক একেএম শহীদুল হক, র্যা বের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ, পুলিশ কমিশনার, বিজিবি মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার আজিজ অহমেদ, সংসদ সদস্য অসলামুল হক এবং সড়ক পরিবহন নেতারা উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print