শুক্রবার , ২০ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » টেনিস » খালেদার প্রস্তাব আলোচনা হবে ২০১৮তে

খালেদার প্রস্তাব আলোচনা হবে ২০১৮তে

tqs6hc6s-e1406540608955বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দেয়া ৭ দফা প্রস্তাব সম্পর্কে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেছেন, ‘তিনি ভালো কথা বলেছেন। কিন্তু তিনি খারাপ সময়ে ভালো কথা বলেছেন। ২০১৫ সালে এ বিষয়ে কোনো আলোচনা হবে না। ২০১৮ সালের শেষের দিকে প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা হতে পারে।’

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশনে বঙ্গবন্ধু একাডেমি আয়োজিত ‘চলমান রাজনীতি বিষয়ে আলোচনা’ শীর্ষক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেন, ‘বিরোধীদলের নেত্রী হঠাৎ করেই সংবাদ সম্মেলন করলেন। অনেকে কড়া মন্তব্য করেছেন। আমি কড়া মন্তব্য করবো না। তিনি নির্বাচনী আইন সংশোধন, নির্দলীয় সরকার, আলোচনার কথা বলেছেন। ভালো কথা বলেছেন। কিন্তু এ নিয়ে এখন কোনো আলোচনা হবে না। আপনাকে অপেক্ষা করতেই হবে।’

‘আপনি যখন ৭ দফা দিয়েছেন। আপনার শুভ বুদ্ধির উদয় হয়েছে। আপনাকে ৪ বছর অপেক্ষা করতেই হবে। ৪ বছর বেশি সময় না। দেশ এখন এগিয়ে যাচ্ছে।’

‘৫ জানুয়ারিকে আমরা গণতন্ত্র রক্ষা দিবস মনে করি। যথাসময়ে ৫ জানুয়ারি সমাবেশ হবে। আপনারা তো অনেক চেষ্টা করেছেন। বিদেশিরা ৫ জানুয়ারি নির্বাচন মেনে নিয়েছে। ৫ জানুয়ারি সমাবেশ নিয়ে ঝামেলা করেন না। সভা নিয়ে অশান্তি করেন না। আওয়ামী লীগের এই সমাবেশ বানচাল করার কারো সাধ্য নাই।’

তিনি বলেন, ‘আপনারাও আবেদন করেন। আপনারাও সভা-সমাবেশ করেন। কিন্তু গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে করতে হবে।’

বিশেষ অতিথি হাজী মোহাম্মদ সেলিম বলেন, ‘খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান ক্ষমা না চাইলে বিএনপিকে আর সমাবেশ করতে দেয়া হবে না। মাঠে যা হওয়ার হবে। সেটা আমরা দেখবো। কিন্তু ক্ষমা না চাইলে কোনো সমঝোতাও হবে না।’

বঙ্গবন্ধু একাডেমির উপদেষ্টা সাজ্জাদ হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন আব্দুল হাই কানু, হুমায়ুন কবির মিজি প্রমুখ।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print