রবিবার , ২২ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » বিনোদন » বিয়ে করেছেন ইমরান খান!

বিয়ে করেছেন ইমরান খান!

HAUQ-1420071212এক সময় ক্রিকেট মাঠকে গরম রেখেছিলেন, আর এখন রাজনীতির মাঠ গরম রাখছেন। পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার ও পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) প্রধান ইমরান খানের কথা বলছি। রাজনৈতিক অঙ্গনে ঝড় তোলা ইমরান খান এবার বিশ্ব গণমাধ্যমে অন্যরূপে হাজির হয়েছেন। তিনি বিবিসির এক উপস্থাপিকাকে গোপনে বিয়ে করেছেন বলে জোর গুঞ্জন ওঠেছে।

৪১ বছর বয়সী প্রাক্তন ওই সংবাদ উপস্থাপিকার নাম রিহাম খান। তিন সন্তানের মা তিনি। আগের স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে গেছে অনেক আগেই। বর্তমানে বাস করেন ব্রিটেনে।

বুধবার ফেসবুকে ইমরান খান ও রিহামের ছবি আপলোড করে বিয়ের এই গুঞ্জন ছড়ায় অনলাইন ব্যবহারকারীরা। ফেসবুকে রিহামকে কড়া ভাষায় সমালোচনা করা হয়েছে। নারীদের অধিকার আদায়ের পক্ষে কাজ করার জন্য তাকে লেসবিয়ান (নারী সমকামী) হিসেবে অভিহিত করা হয়। বিভিন্ন পার্টিতে যাওয়ার জন্য তাকে ঘৃণা করা হয়েছে। তার মেয়েকে একজন ‘পর্নোস্টার’ হিসেবেও অভিহিত করা হয়েছে এতে। পাকিস্তানজুড়ে বিষয়টি ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছে। তবে তারা কবে, কোথায় বিয়ে করেছেন ফেসবুক পেজে তা বলা হয়নি।

খবরটি প্রকাশ হওয়ার পর ইমরান খানের বোন আলিমা তাকে যখন এ ব্যাপারে প্রশ্ন করেন, তখন তিনি বিষয়টি অস্বীকার করেন। বিয়ের বিষয়টি সম্পূর্ণ গুজব ও অতিরঞ্জিত বলেও দাবি করেন ইমরান খান।

আলিমা ডেইলি মেইলকে জানান, ইমরানের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ তার সুনাম নষ্ট করার জন্য এ রকম গুজব ছড়াচ্ছে। বিরোধী হিসেবে তাকে আক্রমণ করার একমাত্র অস্ত্র এটি। তাই এটি বন্ধ হওয়া উচিত।

এ ব্যাপারে বিবিসির টিভি স্টেশনের এক প্রয়োজক জানান, ইমরান খানের সঙ্গে ভাল সম্পর্ক ছিল রিহামের। তারা এক সময় বন্ধু হয়। অনেক আগে তাদের মধ্যে বিশেষ একটি সম্পর্ক গড়ে ওঠলেও তা বেশি দিন টিকেনি। পরে আমরা শুনেছিলাম, রিহাম ইমরানের প্রতি বেশ সিরিয়াস ছিলেন। ইমরানও তাই। কিন্তু আমি মনে করি, পরে তারা দুইজনেই বুঝতে পেরেছিলেন, এটা আরেকটি নতুন সমস্যা সৃষ্টি করবে। তাই তারা দূরে থাকার বিষয়টি বেছে নেন।

ইমরান খান ব্রিটেনের নাগরিক জেমিমা গোল্ডস্মিকে বিয়ে করলেও পরে তা বিচ্ছেদে রূপ নেয়। পরে ইমরান খান অস্ট্রেলিয়ার এক নারীকে বিয়ে করেছেন ও তাদের একটি সন্তানও রয়েছে এমন গুজব ওঠে।

তথ্যসূত্র : ডেইলি মেইল।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print