সোমবার , ২৩ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » প্রধান খবর » শুরু হচ্ছে অসমাপ্ত বাঘ শুমারি

শুরু হচ্ছে অসমাপ্ত বাঘ শুমারি

গত বছর শুরু হয়ে মাঝপথে থেমে যাওয়া বাঘ শুমারির কাজ শেষ করার পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার। শনিবার থেকে সুন্দরবনের কিছু নির্দিষ্ট অংশে এই গণনার কাজ শুরু হচ্ছে।

বন্যপ্রাণী বিষয়ক বিভাগীয় কর্মকর্তা জাহিদুল কবির বলেন, ‘শনিবার মাঠপর্যায়ের জরিপ শুরু হবে। আগামী ৬ নভেম্বর রাসমেলার পর দুই মাসব্যাপী এই শুমারির বাকি কাজ করা হবে।

তিনি জানান, ‘বাঘেরা প্রধানত কটকাকচিখালি, নীলকমল ও কৈখালী এলাকায় থাকে। এবার নীলকমলের ৬২৪ বর্গকিলোমিটার এলাকায় জরিপ চালানো হবে। গত বছর শীতের সময় কটকাকচিখালির ৩৬০ বর্গকিলোমিটার ও কৈখালীর ৩৬৫ বর্গকিলোমিটার এলাকায় জরিপ সম্পন্ন হয়েছে।

এই তিন এলাকার বাঘের সংখ্যা থেকে সুন্দরবনের বাকি অংশের বাঘের মোট সংখ্যা বের করা হবে।

গত বছর বাংলাদেশ সরকার স্ট্রেংদেনিং রিজিওনাল কোঅপারেশেন ফর ওয়াইল্ডলাইফ প্রটেকশননামক বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে এক প্রকল্পের অধীনে ইকোলজি অ্যান্ড পপুলেশন এস্টিমেশন অফ টাইগারসনামের এই প্রকল্প শুরু করে।

সুন্দরবনের পশ্চিমবঙ্গের অংশেও অনুরূপ প্রকল্প চালুর প্রক্রিয়া চলছে।

ক্যামেরা ফাঁদ পদ্ধতির মাধ্যমে জরিপকারীরা গহীন বনাঞ্চলের বিভিন্ন অংশে স্বয়ংক্রিয় ক্যামেরা স্থাপন করে রাখেন। ক্যামেরায় ওঠা ছবি বিশ্লেষণ করে বাঘের সংখ্যা নিরূপণ করা হয়।

বন বিভাগ জানায়, সুন্দরবনের বিভিন্ন অংশে ৮৯টি ইনফ্রারেড ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, ২০০৪ সালে সর্বশেষ সুন্দরবনের বাঘ গণনার কাজ করা হয়। তখন বাংলাদেশ অংশে ৪৪০টি ও ভারত অংশে ৬০৭০টি বাঘের হদিস পাওয়া যায়।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print