মঙ্গলবার , ১৪ আগস্ট ২০১৮
মূলপাতা » টেনিস » সরকারের সঙ্গে বিএনপির অনেক নেতার যোগাযোগ রয়েছে

সরকারের সঙ্গে বিএনপির অনেক নেতার যোগাযোগ রয়েছে

হাছান মাহমুদসরকারের সঙ্গে বিএনপির অনেক নেতার নিয়মিত যোগাযোগ রয়েছে বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ।

শুক্রবার ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের পক্ষ থেকে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বেগম জিয়া যাদেরকে নিয়ে দুর্বার আন্দোলন করার হুমকি দিচ্ছেন সে দলের মহাসচিব চেহারা লুকানোর জন্য হরতালের দিনে মাথায় হেলমেট পরে ঘুরে বেড়ান। যে দলের নেতারা সরকারের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখেন তাদের নিয়ে যে চরম আন্দোলনের হুমকি দিয়েছেন সেটা কি সফল করা যাবে? এতে আমাদের হাসি পায় বটে।’

এসময় সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন, সরকার বিএনপিকে ভাঙার ষড়যন্ত্র করছে বলে যে অভিযোগ বিএনপির পক্ষ থেকে অনেক দিন ধরে করা হচ্ছে এটা কি সত্য? এর জবাবে তিনি বলেন, ‘আমরা বিএনপি কিংবা অন্য কোনো দলকে ভাঙার চেষ্টা করছি না। আমরা চাই বিএনপি শক্তিশালী দল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হোক।’ তবে বোমা মেরে গাড়িতে আগুন দিয়ে মানুষ হত্যা বন্ধ করার আহ্বান জানান তিনি।

হাছান মাহমুদ খালেদা জিয়া ও তার পুত্র তারেক রহমানকে মুখ সামলে বক্তব্য দেয়ার অনুরোধ করে বলেন, ‘আমরা ভেবেছিলাম কুপুত্রের কর্মকাণ্ডের জন্য তিনি জাতির কাছে ক্ষমা চাইবেন। কিন্তু না তিনি নিজেও বেসামাল হয়ে পুত্রের সঙ্গে তাল মিলিয়ে কথা বলছেন। আমি খালেদা জিয়াকে অনুরোধ করবো, আপনি এবং আপনার পুত্র মুখ সামলে কথা বলুন। আপনি এবং আপনার পুত্রের কর্মকাণ্ডের জন্য জাতির কাছে ক্ষমা চান। তারপর মুখটা সামলে আপনাদের বক্তব্য জাতির কাছে তুলে ধরেন। তাহলে জাতি হয় তো ক্ষমা করে দিতেও পারে।’

তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে স্মরণ করে দিতে চাই, যখন কোনো সেনাপতি নিজেই যুদ্ধে নামার ঘোষণা দেন তখন ধরে নেয়া যায়, সে সেনাপতিরা হেরে যাচ্ছেন। বেগম জিয়ার নিজে আন্দোলনে নামার ঘোষণা তাদের ব্যর্থতার ইঙ্গিত বহন করে।’

গতকাল বৃহস্পতিবার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে ছাত্র কনভেনশনে বিচারপতিদের নিয়ে দেয়া বক্তব্যের প্রসঙ্গ তুলে ধরে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, ‘এ ধরনের বক্তব্য আদালত অবমাননার সামিল।’ খালেদা জিয়ার বক্তব্য যে আদালত অবমাননার সামিল তা প্রমাণ করার জন্য আদালত স্বপ্রণোদিত হয়ে ব্যবস্থা নেবেন বলে আশা করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলন উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক অসীম কুমার উকিল প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গতকাল ছাত্র কনভেনশনে খালেদা জিয়া বলেন, ‘আজ বিচারপতিরা চেহারা দেখে, দল দেখে বিচার করছে। কেউ আওয়ামী লীগ করলে তার সকল মামলা খালাস হয়ে যায়। আমরা বলেত চাই- হাসিনার মামলাগুলোকে পুনরায় সচল করতে হবে। আমাদের মামলা চলবে আর হাসিনার মামলা চলবে না, তা হবে না।’


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print