সোমবার , ১৬ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » টেনিস » জামায়াতের ডাকা দ্বিতীয় দফায় ৪৮ ঘন্টার হরতাল চলছে

জামায়াতের ডাকা দ্বিতীয় দফায় ৪৮ ঘন্টার হরতাল চলছে

মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে জামায়াতে ইসলামীর আমীর মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির আদেশের প্রতিক্রিয়ায় দলটির ডাকা দ্বিতীয় দফার ৪৮ ঘন্টার হরতাল চলছে। রোববার সকাল ৬টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ৬টা পর্যন্ত দ্বিতীয় দফায় এ হরতাল পালন করছে জামায়াতে ইসলামী।
এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে শুক্রবার সকাল ৬টা পর্যন্ত প্রথম দফায় ২৪ ঘন্টার হরতাল পালন করেছিল দলটি।
গত বুধবার আান্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির আদেশ ঘোষণার পরপর রায়ের প্রতিক্রিয়ায় বৃহস্পতি, রবি ও সোমবার দুই দফায় ৭২ ঘন্টার হরতালের ডাক দেয় জামায়াত।
দ্বিতীয় দফার হরতালে রোববার সকাল থেকে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে হরতালের সমর্থনে বিক্ষিপ্ত মিছিল ও পিকেটিং করেছে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা।
রাজশাহীতে জামায়াত শিবির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। নগরীর ওয়াসা মোড়ে হরতালে সমর্থনে মিছিল ও সড়কে পেট্রোল ঢেলে অবরোধ করলে পুলিশ তাদের ধাওয়া দেয়। এসময় পুলিশ রাবার বুলেট ছুঁড়ে পিকেটারদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এছাড়া কোথায়ও তেমন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।
হরতালের সমর্থনে রাজধানীর পল্লবী, বংশাল, মালিবাগ, মগবাজার এলাকায় মিছিল করেছে জামায়াত শিবির নেতাকর্মীরা। হরতালে রাজধানীতে ব্যক্তিগত গাড়ি চলাচল বন্ধ। গণপরিবহণ চলাচল করলেও তুলনামূলক অনেক কম। গাবতলী, সায়েদাবাদ ও মহাখালী থেকে দূরপাল্লার কোন যান ছেড়ে যায়নি। একইভাবে দেশের কোন স্থান থেকে দূরপাল্লার কোন যান ঢাকায় প্রবেশ করেনি। এছাড়া ট্রেন ও লঞ্চ চলাচল করলেও যাত্রী সংখ্যা কম থাকায় নির্ধারিত সময়ে এ যানগুলো গন্তব্যের উদ্দেশ্যে ছেড়ে ছাড়েনি। হরতালকে ঘিরে রাজধানী ঢাকায় কয়েক স্তরের নিরাপত্তাবলয় গড়ে তোলা হয়েছে। প্রতিটি মোড়ে মোড়ে অতিরিক্ত পুলিশ ও  র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া সাদা পোশাকের পুলিশ, ডিবির নজরধারী জোরদার করা ছাড়াও বিজিবি, পুলিশ, র‌্যাবের টহল বাড়ানো হয়েছে।
রাজধানীর বাইরে রাজশাহী, চট্টগ্রাম, সিলেট, খুলনাসহ বেশ কয়েকটি এলাকাকে ঝুঁকিপূর্ণ ধরে সেখানে বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া আজ জামায়াত নেতা মীর কাসেম আলীর রায়কে ঘিরে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।
এদিকে আমাদের প্রতিনিধিরা জানায়, দেশের বিভিন্ন এলাকায় হরতালের সমর্থনে মিছিল ও পিকেটিং করেছে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা। হরতালে আভ্যন্তরীণ ও দূরপাল্লার যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। বেশীর ভাগ দোকান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও অফিস, ব্যাংক-বীমা খোলা থাকলেও উপস্থিতি কম।
রংপুর, ফেনী, চাঁদপুর, পাবনা, খুলনা, লক্ষ্মীপুর, কুষ্টিয়া, রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, চট্টগ্রামসহ বেশ কয়েকটি জেলায় সড়কে অগ্নিসংযোগ করে মিছিল করেছে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা।

আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print