সোমবার , ১৮ জুন ২০১৮
মূলপাতা » স্বাস্থ্য » মাইগ্রেন থেকে মুক্তি দেবে লবণ!

মাইগ্রেন থেকে মুক্তি দেবে লবণ!

মাইগ্রেনের ভুক্তভোগীরাই বোঝেন কী প্রচন্ড এর যন্ত্রণা আর এই কারণেই তারা চান খুব দ্রুতই দূর হয়ে যাক এই ব্যথা। মাত্র আধাঘন্টার মাঝে মাইগ্রেনের ব্যথা দূর করার জন্য ব্যবহার করে দেখতে পারেন এই উপায়টি।

মাইগ্রেনের ব্যথা একবার শুরু হলে তা নষ্ট করে দিতে পারে পুরোটি দিন। শুধু তাই নয়, কারও কারও মাইগ্রেনের ব্যথা সাধারণ পেইনকিলারে দূর হতে চায় না। কী করবেন তারা? তাদের উপকারে আসতে পারে লবণ।

কি করে ব্যবহার করবেন লবণ?

মাইগ্রেনের ভুক্তভোগী হয়ে থাকলে আপনি নিশ্চয়ই এরই মাঝে মাইগ্রেন কমানোর অনেকগুলো উপায় পরখ করে দেখেছেন। কিন্তু কিছুতেই কিছু হচ্ছে না। মাইগ্রেনের ব্যথা একবার শুরু হলে কোনো রকম পেইন কিলারই কাজ করে না। পেইন কিলার আবার অনেকে পছন্দও করেন না, অথবা স্বাস্থ্যগত সমস্যার কারণে পেইন কিলারের ব্যবহারে রয়েছে নিষেধাজ্ঞা। কিন্তু লবণের ব্যবহার কাজ করতে পারে আপনার ক্ষেত্রেও।

প্রথমেই জেনে রাখা দরকার, লবণ ব্যবহার করা উচিত নয় কার। মাইগ্রেনের ব্যাথা চলাকালীন সময়ে অনেকের রক্তচাপ বেড়ে যায়। লবণ ব্যবহারে তাদের রক্তচাপ আরও বেড়ে ঝুঁকির কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। তারা মাইগ্রেনের ব্যথা কমাতে সেলেরির জুস পান করতে পারেন। কারণ এতে রয়েছে এমন সোডিয়াম যা রক্তচাপ বাড়ায় না আবার মাইগ্রেনের ব্যথা কমাতেও সাহায্য করে।

লবণ ব্যবহার করে মাইগ্রেন কমাতে চাইলে অবশ্য সাধারণ মানের টেবিল সল্ট ব্যবহার না করে উচ্চ মানের লবণ ব্যবহার করতে হবে, যেমন হিমালায়ান ক্রিস্টাল সল্ট। এর বিশেষত্ব হলো এতে উপস্থিত ৮৪টি খনিজ উপাদান, ইলেক্ট্রোলাইট এবং মৌল। এই লবণ শুধু যে মাইগ্রেন কমায় তাই নয়, বরং শক্তিশালী করে তোলে আপনার শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে, বাড়ায় শক্তি, রক্তে সেরোটোনিনের মাত্রা নিয়ন্ত্রন করে, শরীরে অম্ল-ক্ষারের ভারসাম্য বজায় রাখে।

আর লবণ ব্যবহারের এই উপায়টি ভারি সহজ। এক গ্লাস লেবুর রস (অথবা আপনার পছন্দের কোনো ফলের জুস) এর মাঝে বেশি করে লবণ দিয়ে তৈরি করুন একটি মিশ্রণ আর তা পান করে ফেলুন। মাইগ্রেনের ব্যথা দূর হয়ে যাবে ম্যাজিকের মতো।

তবে অবশ্যই কী পান করছেন তার প্রতি লক্ষ্য রাখবেন। উচ্চ রক্তচাপের রোগীদের অবশ্যই লবণের এই মিশ্রণ পান করা উচিত নয়। এছারা যাদের আলসার বা গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা আছে তারাও লেবু বা এমন অ্যাসিড ধরণের জুস পান করা থেকে বিরত থাকবেন।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print