সোমবার , ২৩ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » অন্যান্য » ড. তুহিন মালিকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা

ড. তুহিন মালিকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ড. তুহিন মালিকের বিরুদ্ধে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট হাসিবুল হকের আদালতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক গোলাম রাব্বানী মামলা তিনটি দায়ের করেন।

ড. তুহিন মালিকের বিরুদ্ধে মানহানির অভিযোগে একটি, রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে একটি এবং ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে একটি মোট পৃথক তিনটি মামলা দায়ের করা হয়।

দুই মামলায় বাদীর শুনানির পর শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে রাষ্ট্রের অনুমতি নিয়ে মামলাগুলো এজহার হিসেবে গন্য করতে আদেশ দেন আদালত। বাদীপক্ষকে শুনানি করেন ব্যারিস্টার নাজমুল হাসান। এ সময়আদালতে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগ, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক শেখ রাসেল,অর্থ সম্পাদক আশিকুল ইসলাম ও ত্রাণ ও দুর্যোগ সম্পাদক নুরে আলম।

মামলার বিবরণীতে বলা হয়, গত ৩০ নভেম্বর লন্ডনের ওয়াটার লিলি গার্ডেন অডিটরিয়ামে এক অনুষ্ঠানে দেওয়া এক বক্তব্যে ড. তুহিন মালিক বলেন, সংবিধানে  সব মুজিবের কাহিণী ও তার পরিবারের গানাবাজনা জুড়ে দেওয়া হয়েছে। এগুলো যে বাতিল করতে চেষ্টা করবে তার ফাঁসি হয়ে যাবে। তুহিন মালিক আরো বলেন, সংবিধানে নাস্তিক্যবাদিতা ও ধর্মহীনতা বিষয় জুড়ে দেওয়া হয়েছে। সংবিধানে যা জুড়ে দেওয়া হয়েছে তা কেয়ামত পযন্ত কেহও সংশোধন করতে পারবে না।

তিনি আরো বলেন, আলহামদুলিল্লাহ আল্লাহ যা চান, মানুষ সেটা হয়তো বোঝে না। একমাত্র বিকল্প রয়ে গেছে সংবিধান বাতিল! কিসের জাতির পিতা, কিসের আদর্শ, কিসের চেতনা কিচ্ছুই থাকবে না, ইনশাআল্লাহ!

এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে ছাত্রলীগ নেতা গোলাম রাব্বানী  মামলাগুলো দায়ের করেন।

 #


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print