সোমবার , ১৬ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » প্রধান খবর » দুর্নীতিতে এবার ১৪ তম

দুর্নীতিতে এবার ১৪ তম

download (4)বাংলাদেশ এবার বিশ্বের সর্ব্বোচ্চ দুর্নীতিগ্রস্ত দেশগুলোর তালিকায় ১৪তম অবস্থানে এসেছে। অথচ গতবছর ছিল ১৬তম। আর ২০১২ সালে ছিল ১৩তম। তবে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে দ্বিতীয় দুর্নীতিগ্রস্ত হিসেবে বাংলাদেশের নাম এসেছে। এ অঞ্চলে প্রথম দুর্নীতিগ্রস্ত দেশ আফগানিস্তান। এছাড়া বরাবরের মতো দুর্নীতির শীর্ষে রয়েছে আফ্রিকার দেশ সোমালিয়া।

বুধবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপ লাউঞ্জে ‘দুর্নীতির ধারণা সূচক ২০১৪’ উপস্থাপন উপলক্ষ্যে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) এ তথ্য জানায়। সংবাদ সম্মেলনে মূল নিবন্ধ উপস্থাপন করেন টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান।

ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘বিশ্বের ১৭৪টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ উচ্চক্রম অনুযায়ী ১০০ এর মধ্যে ২৫ স্কোর পেয়ে দুর্নীতিতে বাংলাদেশের অবস্থান ১৪৫তম এবং নিম্মক্রম অনুযায়ী বাংলাদেশের অবস্থান ১৪তম।’

গত বছরের তুলনায় বাংলাদেশে দুর্নীতি বেড়েছে উল্লেখ করে তিনি জানান, ২০১৩ সালে উচ্চক্রম অনুযায়ী বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৩৬ ও নিম্নক্রম অনুযায়ী ১৬তম। এবারের স্কোর গত বছরের তুলনায় ২ পয়েন্ট কমেছে।

আরো জানানো হয়, দক্ষিণ এশিয়ার সাতটি দেশের মধ্যে দুর্নীতিতে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয় বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

বাংলাদেশে দুর্নীতি বাড়ার কারণ হিসেবে তিনি জানান, সরকারের দুর্নীতিবিরোধী অঙ্গীকার অনুযায়ী পদক্ষেপ গ্রহণে ঘাটতি, দুদকের স্বাধীনতা খর্বের উদ্যোগ ও অন্যদিকে দুদকের প্রত্যাশিত সক্রিয়তা ও কার্যকরতার ঘাটতি, দুর্নীতির ঘটনায় জড়িতদের বিচারের সম্মুখীন করার ঘাটতি, ভূমি-নদী ও জলাশয় দখল, ঋণ খেলালি, ঠিকাদারী ও নিয়োগ ব্যবসা, রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় ব্যবসার প্রসার, জবাবদিহিতামূলক প্রতিষ্ঠানের দুর্বলতা, স্বার্থের দ্বন্দ্ব, কালো টাকা সাদা করার সুযোগ ও উচ্চ মাত্রায় অবৈধ অর্থের পাচার।

সংবাদ সম্মেলনে এসময় উপস্থিত ছিলেন- তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ও টিআইবির ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য এম. হাফিজ উদ্দিন খান, আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক সুলতানা কামাল প্রমুখ।

#


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print