সোমবার , ১১ ডিসেম্বর ২০১৭
মূলপাতা » জাতীয় » বাংলাদেশ সীমান্তে প্রাচীর নির্মাণের প্রস্তাব মিয়ানমারের

বাংলাদেশ সীমান্তে প্রাচীর নির্মাণের প্রস্তাব মিয়ানমারের

বিএসএফবাংলাদেশের সঙ্গে মিয়ানমার সীমান্তে ইটের প্রাচীর তৈরির একটি প্রস্তাব আরাকান রাজ্যের আইনসভায় লিপিবদ্ধ হয়েছে। মিয়ানমারের রাজনৈতিক দল ইউনিয়ন সলিডারিটি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টি (ইউএসডিপি) এই প্রস্তাব তুলে ধরেছে।

চলতি সপ্তাহের সোমবার তর্ক-বিতর্ক শেষে প্রস্তাবটি আনুষ্ঠানিকভাবে নথিভূক্ত করা হয়েছে।

মিয়ানমারের সংবাদ মাধ্যম দি ইরাবতী নিউজ বলছে, ইউএসডিপির সংসদ সদস্য ইউ জো জো মিং এই প্রস্তাব তুলে ধরেন। তিনি বাংলাদেশ থেকে বার্মাকে আলাদা করার জন্য সীমান্তে ৩০ থেকে ৪০ ফুট উঁচু ইটের দেয়াল তোলার সুপারিশ করেন।

দুদেশের মধ্যকার প্রস্তাবিত এই দেয়ালের ঘনত্ব ৫ থেকে ১০ ফুট করার কথাও বলেন তিনি। তবে দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে দেয়াল তৈরির প্রস্তাব রাজ্যের পার্লামেন্ট পর্যন্ত গেলেও, বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর কাছে এ ধরনের কোন খবর নেই।

এক দেশে থেকে আরেক দেশে অবৈধ প্রবেশ ঠেকাতে নিরাপত্তার কারণে পশ্চিমা অনেক দেশগুলোত এ ধরনের দেয়াল তৈরির চিন্তা-ভাবনা চলছে বলে উল্লেখ করেন মিয়ানমারের ওই রাজনৈতিক নেতা। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত ডোনাল্ড ট্রাম্প তার নির্বাচনী প্রচারে মেক্সিকোর সাথে ২০০০ মাইল এলাকা জুড়ে সীমান্তে দেয়াল তৈরির যে ঘোষণা দেন যেটি ব্যাপকভাবে সমালোচিত হয়েছে।

এবার মিয়ানমারের ভেতরে এই ধরনের আলোচনা শুরু হল। অরাকান রাজ্যের তিনজন সংসদ সদস্য এই প্রস্তাবে সমর্থন দেন। খবরে বলা হয়, মিয়ানমারের কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশ সীমান্তে ১২৭ মাইল এলাকাজুড়ে কাঁটাতারের বেড়া তৈরির কাজ ইতোমধ্যে সম্পন্ন করেছে। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে অবশ্য এ ধরনের কোন বেড়া তৈরি করা হয়নি।

রাজ্যের সরকারের পক্ষ থেকে নিরাপত্তা ও সীমান্ত বিষয়ক মন্ত্রী কর্নেল তেইং লিন এ প্রস্তাব গ্রহণ করে বলেছেন, আমি প্রস্তাবে আপত্তি করছি না কারণ এরইমধ্যে সীমান্তে আমাদের কাজ চলছে। ফলে এটি রেকর্ড হিসেবে লিপিবদ্ধ করছি। বিবিসি বাংলা।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print