সোমবার , ২৫ জুন ২০১৮
মূলপাতা » ক্রিকেট » আট বছর নিষিদ্ধ ব্লাটার-প্লাতিনি

আট বছর নিষিদ্ধ ব্লাটার-প্লাতিনি

2015_12_21_15_25_50_EWLbaNUx01cqXe5qttX1SPEFLa10Jb_originalদীর্ঘমেয়াদী নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে হল বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার সদ্য সাবেক সভাপতি সেপ ব্লাটার ও ইউরোপের সর্বোচ্চ ফুটবল সংস্থা উয়েফা সভাপতি মিশেল প্লাতিনিকে। ফিফার এথিকস কমিটির তদন্ত শেষে তাদের উভয়কে ফুটবল সংক্রান্ত সব কার্যক্রম থেকে আট বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে।

সোমবার ফিফার অ্যাডজুডিকেটরি চেম্বারের বিচারক হ্যান্স জোয়াকিম একার্ট দুজনকে দোষী সাব্যস্ত করে এই রায় ঘোষণা করেন।

২০১১ সালে একটা আর্থিক লেনদেন নিয়ে অস্বচ্ছতার অভিযোগ এসেছিল ব্লাটার-প্লাতিনির বিরুদ্ধে। ফিফার একটা প্রকল্পের জন্য পরামর্শক হিসেবে ২০ লাখ ডলার নিয়েছিলেন প্লাতিনি। সেটা হয়েছিল ব্লাটারের মধ্যস্থতায়। অভিযোগ এসেছিল, সেই লেনদেনে ফিফার স্বার্থ রক্ষিত হয়নি। পরে ফিফার নৈতিকতা কমিটি দুজনকে ৯০ দিনের জন্য নিষিদ্ধ করে।

ফিফা কংগ্রেসে ২০১৫ সালে আবারো নির্বাচিত হয়েছিলেন ব্লাটার। তবে পাশ্চাত্যের দেশগুলোর বিরোধিতার মুখে আগামী ফেব্রুয়ারিতে নতুন উত্তরসূরি নির্বাচন করে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন তিনি। এর মধ্যেই ফিফার এথিক্স কমিটি ৯০ দিনের জন্য তাদের ফুটবলে নিষিদ্ধ করে। সেই নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই নতুন এই সিদ্ধান্ত আসল।

আট বছর নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি দুজনকে জরিমানাও গুনতে হবে। ব্লাটারকে জরিমানা ৪০ হাজার ডলার, আর প্লাতিনির ৮০ হাজার ডলার।
এই নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ ক্রীড়া আদালতের দ্বারস্থ হওয়ার কথা জানিয়েছে ব্লাটার ও প্লাতিনি।

ব্লাটার সরে দাঁড়ানোর পর ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে তার উত্তরসূরি হিসেবে প্লাতিনি নির্বাচন করতে চেয়েছিলেন। নিষেধাজ্ঞার কারণে তাই সেই দৌঁড়ে ছিটকে পড়লেন তিনি।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print