বুধবার , ১৫ আগস্ট ২০১৮
মূলপাতা » রকমারি » ছেলে শিশুর পেটে মেয়ে শিশু

ছেলে শিশুর পেটে মেয়ে শিশু

childরংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুই মাসের ছেলে শিশুর পেটে মেয়ে বাচ্চার ভ্রুণ পাওয়া গেছে। শনিবার সন্ধ্যায় অস্ত্রোপচার করে মেয়ে শিশুর ভ্রুণ বের করেন চিকিৎসকরা। মেয়ে শিশুটির হাত-পা, মস্তিষ্ক, মাথার চুলসহ মানুষের যেসব অর্গান থাকার কথা তার সবই রয়েছে।
রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. বাবুল কুমার সাহার নেতৃত্বে ৬ চিকিৎসক শিশুটির অস্ত্রোপচার করে মেয়ে শিশুটির ভ্রুণ বের করেন।
শিশু সার্জারি বিশেষজ্ঞ ডা. বাবুল কুমার সাহা জানান, গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার রতের বাজার গ্রামের গার্মেন্টস শ্রমিক সোহেলের স্ত্রী মুন্নী বেগম দু’মাস আগে একটি ছেলের জন্ম দেন। জন্মের ক’দিন পর শিশুটির পেট ফুলতে থাকে। এরপর রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শিশুটিকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে আলট্রাসনোগ্রাম আর সিটিস্ক্যান করার পর দেখা যায় শিশুটির পেটে আর এক শিশুর অস্তিত্ব রয়েছে। এরপর সফল অস্ত্রোপচার করে শিশুটির পেট থেকে একটি মেয়ে শিশুর ভ্রুণ বের করা হয়।
তিনি বলেন, ‘অস্ত্রোপচার করে দেখা যায়, মেয়ে শিশুর শরীরের প্রায় সবগুলো অর্গান ডেভলাপ করেছে। এটাকে এক ধরনের মেজিউড টেরাটোনা বলা যায়। শিশুটি সম্পূর্ণ আকৃতি ধারণ করায় আমরা এটাকে শিশুর পেটে শিশু বলছি।’
অস্ত্রপচার করার পরে শিশুটির জ্ঞান ফিরেছে। এখন সে সুস্থ রয়েছে। অস্ত্রপচার করে বের করা মেয়ে বাচ্চার ভ্রুণটি সংরক্ষন করা হয়েছে বলেও জানান ওই চিকিৎসক।

আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print