মঙ্গলবার , ১৭ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » বিনোদন » সপরিবারে ভারত ছাড়ছেন আমির!

সপরিবারে ভারত ছাড়ছেন আমির!

amir-khanধর্মীয় অসহিষ্ণুতা নিয়ে মন্তব্য করে তোপের মুখে বলিউডের মি. পার্ফেক্টশনিস্ট খ্যাত তারকা আমির খান। রাষ্ট্রদ্রোহের মামলাও হয়েছে তার বিরুদ্ধে। এমনকি তাকে চড় মারার জন্য এক লাখ টাকা পুরস্কারও ঘোষণা করা হয়েছে। এমন পরিস্থিতে কয়েকদিনে জন্য স্বপরিবারে ভারত ছেড়ে আমেরিকায় যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আমির খান।

এ বিষয়ে আমিরের ঘনিষ্ঠ এক সূত্র বলেন, ‘আমরা বিষয়টি সম্পর্কে এখনও নিশ্চিত নই। পরিস্থিতি বেশ বিশৃঙ্খল। আপনারাও দেখছেন সবকিছু। তারা (আমির এবং তার পরিবার) কয়েকদিনের জন্য আমেরিকায় যাওয়ার চিন্তা করছেন। পরিস্থিতি ঠিক হয়ে গেলে তারা আবার ফিরে আসবেন।’

গতকাল হঠাৎ করেই করা নিরাপত্তার মধ্যে দিয়ে লুধিয়ানা থেকে মুম্বাইয়ে ফিরে আসেন আমির খান। মুম্বাই এয়ারপোর্ট থেকে ভিআইপি গেট দিয়ে বের হয়ে দ্রুত গাড়ি চালিয়ে বাসায় যান তিনি।

পাঞ্জাবের লুধিয়ানায় দাঙ্গাল সিনেমার শুটিং করছিলেন আমির খান। কিন্তু পাঞ্জাবের একজন শিবসেনা নেতা ঘোষণা দেন, ‘আমিরকে যদি কেউ চড় মারতে পারে তাহলে এক লাখ রুপি পুরস্কার দেওয়া হবে। এরপর লুধিয়ানায় আমির যেখানে অবস্থান করছিলেন সেই হোটেলের সামনে আন্দোলনরত অনেক মানুষকে দেখা যায়। তারা আমিরের পোস্টার পুড়িয়ে তার বিরুদ্ধে শ্লোগান দিচ্ছিলেন। পরিস্থিতি বুঝে সেখান থেকে মুম্বাই ফিরে আসেন আমির খান।

এর আগে আমির খান সম্প্রতি রামনাথ গোয়েঙ্কা এক্সেলেন্স ইন জার্নালিজম পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন। সেখানে তিনি বলেন, ‘গত ৭-৮ মাস ধরে ভারতজুড়ে ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা চলছে। সমাজের মানুষের মধ্যে ‘নিরাপত্তাহীনতা’ এবং ‘ভয়’ কাজ করছে।’

এ ছাড়া ধর্মীয় অসহিষ্ণুতার কারণে আমির ভারত ছাড়ারও চিন্তা করেছিলেন বলে জানান। তিনি বলেন, ‘কিরণ এবং আমি প্রথম থেকেই ভারতে বসবাস করছি। কিন্তু এই প্রথম সে আমাকে দেশ ছাড়ার কথা বলেছে। বাড়িতে এই বিষয়টি নিয়ে আমি যখন কিরণের সঙ্গে কথা বলি; সে আমাকে বলছিল, তাহলে কী আমাদের এখন দেশ ছেড়ে চলে যাওয়া উচিত?’

এরপর থেকেই আমির তোপের মুখে পড়েন রাজনীতিবিদ এবং বিভিন্ন সংগঠনের। এমনকি বলিউডের অনেক অভিনয় শিল্পীও দ্বিমত পোষণ করেছেন আমিরের সঙ্গে।

 


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print