বৃহস্পতিবার , ২৬ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » কলেজ » ছাত্রলীগের সংঘর্ষে নিহত ১, শাবিপ্রবি বন্ধ

ছাত্রলীগের সংঘর্ষে নিহত ১, শাবিপ্রবি বন্ধ

ছাত্রলীগের দুই পক্ষেরআধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে একজন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হওয়ার ঘটনায় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়।

এ ছাড়া দুই গ্রুপের মধ্যে বৃহস্পতিবারের সংঘর্ষে দুজন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরসহ আহত হয়েছেন আরো ১০ জন। এই পরিস্থিতিতে দুপুর ১টায় অনুষ্ঠিত জরুরি সিন্ডিকেট সভায় অনির্দিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ শাখার সভাপতি সঞ্জীবন চক্রবর্তী পার্থ ও সহসভাপতি অঞ্জন রায় সমর্থিত গ্রুপের নেতা-কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। দীর্ঘদিন বাইরে থাকার পর ক্যাম্পাসের দখল নিতে মরিয়া হয়ে ওঠেন শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জীবন চক্রবর্তী পার্থ। সকালে পার্থের নেতৃত্বে ৬০-৭০ জন নেতা-কর্মী শাহপরান হলে হামলা চালিয়ে ৩০টির বেশি কক্ষে ভাঙচুর চালান। এই হল দখলের পর তারা ক্যাম্পাসে শোডাউন করে আবার দ্বিতীয় ছাত্র হলে হামলা চালিয়ে বেশ কয়েকটি কক্ষ ভাঙচুর করেন। এ সময় সহসভাপতি অঞ্জন রায়ের গ্রুপের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ বাধে। উভয় পক্ষের মাঝে প্রায় ৫০ রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়। এতে তিনজন গুলিবিদ্ধ হন। তাদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওসমানী মেডিক্যালে কলেজ হাসপাতালে নিলে সেখানে সুমন নামের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়।

সুমন সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ছাত্র। তিনি শাবির ছাত্রলীগ শাখার সহসভাপতি অঞ্জন রায়ের গ্রুপের সমর্থক বলে জানা গেছে। গুলিবিদ্ধ দুজনের মধ্যে একজনের নাম জানা গেছে। খলিল নামের ওই ছাত্র সমাজবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের প্রথম সেমিস্টারের ছাত্র। এ ছাড়া প্রক্টরসহ আহত ১০ জনকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকতার হোসেন জানিয়েছেন, ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আপাতত পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print