শনিবার , ২১ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » টেনিস » বিএনপি থেকে পদত্যাগ করলেন শমসের মবিন

বিএনপি থেকে পদত্যাগ করলেন শমসের মবিন

shamsher_mobin শমসের মবিনবিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী রাজনীতি থেকে অবসর নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। এ ব্যাপারে তিনি দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে দেয়ার জন্য দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। শমসের মবিন গতকাল বুধবার নিজে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে দেখা করে ইস্তফাপত্র দিয়ে এসেছেন। পদত্যাগপত্রে স্বাস্থ্যগত কারণের কথা থাকলেও এর নেপথ্যে অন্য কারণে বলে জানা গেছে।

গণমাধ্যমকে বর্তমান রাজনীতির নিয়ে তার অসন্তোষের কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, বাংলাদেশের গণতন্ত্র নিয়ে মানুষের মধ্যে অনেক প্রশ্ন আছে।সুস্থ ও গঠনমূলক রাজনীতির কোনো বিকল্প নেই।রাজনীতি এখন রাজনীতির জায়গায় নেই। রাজনীতিতে একটা পরিবর্তন আসা উচিৎ।

 

পদত্যাগ প্রশ্নে তিনি বলেন, এটা কোনো সরকারি চাকরি নয় যে পদত্যাগ করার আগে আনুষ্ঠানিকতা পালন করতে হবে।আমার পদত্যাগপত্র এই মুহূর্ত থেকে কার্যকর হলো।অনুরোধ আসলে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করবেন কি না জানতে চাইলে শমসের মবিন বলেন, পদত্যাগের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত, এ সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার কোনো সুযোগ নেই।

 

এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে বিএনপির একাধিক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছেন, এটা তার একান্তই ব্যক্তিগত বিষয়। এ ব্যাপারে আমাদের বলার কিছু  নেই।

 

মির্জা ফখরুলকে ফোন করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।বৃহস্পতিবার শমসের মবিন চৌধুরী ঢাকাটাইমস টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, অবসরে যাওয়ার বিষয়টি জানিয়ে তিনি দলের চেয়ারপারসনকে একটি ‘চিঠি’ লিখেছেন। বুধবার রাতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে লেখা পদত্যাগপত্রটি দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের হাতে দেওয়া হয়েছে।
পদত্যাগপত্রে তিনি তার স্বাস্থ্যগত সমস্যার কথা লিখেছেন। তিনি বলেছেন, “আমি যুদ্ধাহত একজন মুক্তিযোদ্ধা। শারীরিকভাবে এখন আর রাজনীতি করার মতো অবস্থা নেই। স্বাস্থ্যগত কারণে যেহেতু আমি রাজনীতি না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি, সেহেতু দলের কোনো পদে থাকতে আগ্রহী নই। ফলে আমি দলের সকল পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এখন থেকেই তা কার্যকর হবে।

mobin

শমসের মবিন বলেন, আমি প্রোস্টেট ও চোখের সমস্যায় ভুগছি। চিকিৎসার জন্য আমার বিদেশে যাওয়া জরুরি। এমআরপি পাসপোর্টের জন্য আবেদন জমা দিয়েছি। হাতে পেলেই বিদেশ যেতে চাই।
বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময়ে ২০০১-২০০৫ সাল পর্যন্ত শমসের মবিন চৌধুরী ছিলেন পররাষ্ট্র সচিবের দায়িত্বে। ২০০৮ সালে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে বিএনপিতে যোগ দেন তিনি। সে সময় তিনি চেয়ারপারসনের পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টার দায়িত্ব পান।
২০০৯ সালে বিএনপির কাউন্সিল হলে শমসের মবিনকে দলের ভাইস চেয়ারম্যান করা হয়। চলতি বছরের শুরুতে বিরোধীজোটের ডাকা টানা অবরোধ-হরতালের মধ্যে নাশকতার মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ার পর তিনি আদালত থেকে জামিন পান।

আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print