মঙ্গলবার , ২৪ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » কলেজ » বেরোবি’তে শিক্ষকদের আন্দোলন অব্যাহত

বেরোবি’তে শিক্ষকদের আন্দোলন অব্যাহত

 

শিক্ষক সমিতি দেয়া দাবি না মানায় এবং শিক্ষকদের আন্দোলন বাধা দেয়ার প্রতিবাদে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ কে এম নূর-উন-নবীকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে তৃতীয় দিনের মতো প্রতিবাদ অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন শিক্ষকরা।

পদোন্নতি পাওয়া শিক্ষকদের অর্জিত সময় থেকে পদমর্যাদাসহ অন্যান্য প্রাপ্যতা, সহযোগী অধ্যাপক/অধ্যাপক পদে পদোন্নতি প্রদান ও শিক্ষক সমিতি প্রদত্ত বিভিন্ন দাবি আদায়ের লক্ষ্যে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা থেকে দুপুর দুইটা পর্যন্ত এই প্রতিবাদী কর্মসূচি পালন করেন তাঁরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে অনুষ্ঠিত এই কর্মসূচিতে বিভিন্ন বিভাগের অর্ধ শতাধিক শিক্ষক অংশগ্রহণ করেন। শিক্ষকরা তাঁদের একাডেমিক  দায়িত্ব  পালনের পাশাপাশি । অবস্থান কর্মসূচিতে অংশ নেন।

আন্দোলনরত শিক্ষকরা উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ কে এম নূর-উন-নবী’র একগুয়েমি ও স্বেচ্ছাচারী আচরণের সমালোচনা করে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তাঁরা বলেন, অবিলম্বে শিক্ষকদের যৌক্তিক দাবিসমূহ মেনে নেওয়া না হলে আরো কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। তাঁর বিরুদ্ধে  ক্যাম্পাসে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করে নানা নাটকীয়তার জন্ম দেয়ার পাশপাশি শিক্ষকদের আন্দোলন ভিন্ন খাতে নেওয়ার জন্য বিভিন্ন অপকৌশল চালানোর অভিযোগ জানিয়েছেন শিক্ষকরা।
প্রতিবাদী শিক্ষকদের মধ্যে  থেকে বক্তব্য রাখেন, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. সাইদুল হক, সাধারণ সম্পাদক ড. পরিমল চন্দ্র বর্মন, মার্কেটিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ফেরদৌস রহমান, রসায়ন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এইচএম তারিকুল ইসলাম প্রমুখ।
আগামীকাল শুক্র ও শনিবার ছুটির দুই দিন গণসংযোগ কর্মসূচি ঘোষণা করেন সভাপতি ড. সাইদুল হক। এছাড়াও রবিবার সকাল ১১টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত একই স্থানে আবার প্রতিবাদ-অবস্থান কর্মসূচি পালন করবেন বলে জানিয়েছেন শিক্ষকরা।
উল্লেখ, শিক্ষক সমিতি উপরোক্ত দাবিতে গত ২৭ অক্টোবর থেকে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছে। কর্মসূচির অংশ হিসেবে ইতোমধ্যেই শিক্ষকবৃন্দ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট, অর্থ কমিটি এবং বিভিন্ন প্রশাসনিক ও একাডেমিক পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন।

images (3)


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print