শুক্রবার , ২২ জুন ২০১৮
মূলপাতা » বেসরকারি » ‘আব্বা, আমাকে বিষ খাইয়ে দিয়েছে, আমাকে বাঁচাও’

‘আব্বা, আমাকে বিষ খাইয়ে দিয়েছে, আমাকে বাঁচাও’

খুন‘আব্বা, আমাকে বিষ খাইয়ে দিয়েছে, আমাকে বাঁচাও। তুই কোথায়? আমি হোসেন গাজীর বাড়ি। তুই দাঁড়া, আমি আসতেছি।’
ছেলের এমন আকুতির পর বাবা আবু বক্কর গাজী মোটরসাইকেল নিয়ে দ্রুত চলে যান হোসেন গাজীর বাড়ি। সেখানে গিয়ে দেখেন, বাড়ির উঠানে ছটফট করছে মিঠু। সঙ্গে সঙ্গে ছেলেকে নিয়ে যান পাইকগাছা থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। অবস্থার অবনতি হলে সেখান থেকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে মিঠুর মৃত্যু হয়।
গত সোমবার খুলনার পাইকগাছা উপজেলার বিরাশি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মিঠু গাজীর (২৬) বাড়ি একই উপজেলার পার্শ্ববর্তী সিলেমানপুর গ্রামে। ছেলের শেষ কথাগুলো আবু বক্করের মুঠোফোনে রেকর্ড হয়ে যায়। এখন সেই কথাগুলোই বারবার শুনছেন আর কান্নায় ভেঙে পড়ছেন আবু বক্কর।
মিঠুর পরিবারের অভিযোগ, হোসেন গাজীর মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল মিঠুর। কিন্তু এই সম্পর্ক মেনে নিতে পারেননি হোসেন গাজী। ঘটনার দিন মিঠুকে মুঠোফোনে ডেকে নেওয়া হয়। এরপর তাঁকে পিটিয়ে মুখে বিষ ঢেলে দেওয়া হয়।
এ ঘটনায় মিঠুর বাবা পাইকগাছা থানায় হোসেন গাজী ও তাঁর পরিবারের পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত পরিচয় আরও তিন-চারজনের নামে মামলা করেছেন।
এ বিষয়ে কথা বলতে গতকাল দুপুরে হোসেন গাজীর বাড়িতে গেলে কাউকে পাওয়া যায়নি। ঘর ছিল তালাবদ্ধ। এলাকাবাসী জানান, ঘটনার পর হোসেন গাজী তাঁর পরিবার নিয়ে গা ঢাকা দিয়েছেন।
পাইকগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আশরাফ হোসেন জানান, আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। তদন্তের স্বার্থে তিনি আর কিছু বলতে রাজি হননি।
ময়নাতদন্ত শেষে গতকাল মঙ্গলাবার বিকেলে মিঠুর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এরপর মিঠুর লাশ নিয়ে দোষী ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারের দাবিতে মিছিল করেন এলাকাবাসী। পরে আগড়ঘাটা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে জানাজা শেষে তাঁর লাশ দাফন করা হয়।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print