শুক্রবার , ২০ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » ফুটবল » ব্যাংকে ১৩ কোটি টাকা, পেশায় ভিক্ষুক!

ব্যাংকে ১৩ কোটি টাকা, পেশায় ভিক্ষুক!

kuetসম্প্রতি কুয়েত পুলিশ এক বিদেশি ব্যক্তিকে ভিক্ষাবৃত্তির দায়ে গ্রেপ্তার করে। পেশায় ভিক্ষুক হলেও ওই ব্যক্তির ব্যাংক হিসাবে রয়েছে পাঁচ লাখ কুয়েতি দিনার।

পিটিআইয়ের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কুয়েত সিটি থেকে ভিক্ষার করার সময় বিদেশ থেকে আসা ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

নিরাপত্তা কর্মীর বরাত দিয়ে খালিজ টাইমস জানায়, ‘কুয়েত সিটির একটি মসজিদের সামনে দাঁড়িয়ে তিনি ভিক্ষা করছিলেন। সেই সময়ে তিনি বলছিলেন তার কাছে কোনো অর্থ নেই, এমনকী কোনো ঘরও নেই।’

এক সূত্রে জানা যায়, ‘ভিক্ষা করে দেশটির আইন ভঙ্গের দায়ে তাৎক্ষণিকভাবে তাকে গ্রেপ্তার করে আল আহমাদি পুলিশ স্টেশনে নিয়ে আসা হয়। পরে তদন্ত করে দেখা যায় তার ব্যাংক হিসাবে পাঁচ লাখ কুয়েতি দিনার (১০ কোটি রূপি এবং ১৩ কোটি টাকারও বেশি) রয়েছে।’

গালর্ফ কো-অপারেশন কাউন্সিলের (জিসিসি) সদস্য দেশ কুয়েত, বাহরাইন, ওমান, কাতার, সৌদি আরব এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতে ভিক্ষাবৃত্তি আইনত দ-নীয় অপরাধ। বিশেষ করে রমজান মাসে তো ভিক্ষাবৃত্তিকে আরও জঘন্য অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। কারণ এই মাসে লোকজন সংযমের মহিমায় অতিরিক্ত দানধ্যানে মগ্ন থাকে।

এপ্রিলে ২২জন ভিক্ষুককে বিভিন্ন দেশে ভেতর পাঠিয়েছে কুয়েত সরকার।

এক প্রতিবেদনে বলা হয়, উপসাগরীয় অঞ্চলের দেশগুলোতে প্রবাসীদের কাছে অর্থ উপার্জনের আকর্ষণীয় পন্থা হয়ে উঠেছে ভিক্ষাবৃত্তি।

সৌদি আরবের সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বলেন, সৌদির মোট ভিক্ষুকের মধ্যে ৮৫ শতাংশই বিভিন্ন দেশ থেকে আসা নাগরিক। অবশিষ্ট্য ১৫ শতাংশ সৌদির বাসিন্দা।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print