মঙ্গলবার , ২৪ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » প্রধান খবর » অতিরিক্ত হজযাত্রী নিতে সৌদির সম্মতি

অতিরিক্ত হজযাত্রী নিতে সৌদির সম্মতি

hojjআসন্ন হজ মৌসুমে কোটার বাইরে অতিরিক্ত হজযাত্রী নিতে সম্মতি জানিয়েছেন সৌদি আরব। তবে এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি এখনও। ধর্ম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সৌদি সফর করে অতিরিক্ত হজযাত্রী নেওয়ার অনুরোধ করলে এ আশ্বাস দেয় সৌদি সরকার। জাতীয় সংসদ ভবনে গত সপ্তাহে অনুষ্ঠিত কমিটির ১২তম বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়। এতে কমিটির সভাপতি বজলুল হক হারুন সভাপতিত্ব করেন।

কমিটির কার্যপত্র থেকে জানা যায়, হজে গমনের জন্য সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় নির্ধারিত হজযাত্রীর বাইরে অপেক্ষমান অতিরিক্ত হাজিদের পাঠানোর জন্য ও তাদের সমস্যা সমাধানের জন্য কমিটির সভাপতি সৌদি সফর করেন। এ সময় তিনি সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে সঙ্গে নিয়ে মজলিশে শুরার সদস্য ও সৌদি ধর্ম মন্ত্রীর সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা করেন। বিষয়টি বিবেচনার আশ্বাস দেন সে দেশে ধর্মমন্ত্রী।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বজলুল হক হারুন শনিবার বিকেলে বলেন, আসন্ন হজ মৌসুমে সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে আরো বেশি হজযাত্রী নিবে বলে আশ্বাস দিয়েছে সৌদি। সেই অনুযায়ি কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ সরকার।

জানা যায়, আসন্ন হজ উপলক্ষে সৌদি আরবে হাজিদের জন্য বাড়ি ভাড়া পর্যবেক্ষণ করার জন্য গঠিত স্থায়ী  কমিটির সদস্য সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী, এ কে এম এ আউয়াল (সাইদুর রহমান) ও মোহাম্মদ আমীর হোসেন সৌদি আরব যান। সেখানে বাড়ি ভাড়া প্রক্রিয়াও সফল হয়েছে বলে কমিটিকে জানানো হয়।

বৈঠকে ২০১৫ সালের হজের সার্বিক ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলোচনা হয়। বৈঠকে জানানো হয়, বাংলাদেশের প্রাপ্য  কোটা অনুয়ায়ী এ বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১০ হাজার এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৯১ হাজার ৭৫৮ জনসহ সর্বমোট ১ লাখ ১ হাজার ৭৫৮ জন হজযাত্রী সৌদি আরবে গমন করতে পারবেন। আর কোটা বাড়ালে আরো ৫ হাজার হজযাত্রী বেশি যেতে পারবেন।

কমিটির সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লা, সাধন চন্দ্র মজুমদার, এ কে এম এ আউয়াল (সাইদুর রহমান), সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী, মো. মকবুল হোসেন, মোহাম্মদ আমীর হোসেন এবং দিলারা বেগম বৈঠকে অংশ নেন। বৈঠকে বিশেষ আমন্ত্রণে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print