শুক্রবার , ২৭ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » অন্যান্য » আট মাস পর আ.লীগের চিঠি পেলেন স্পিকার

আট মাস পর আ.লীগের চিঠি পেলেন স্পিকার

Latifসাবেক মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে দল থেকে বহিষ্কারের বিষয়টি প্রায় আট মাস পর স্পিকারকে অবহিত করেছে আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের স্বাক্ষরিত এ-সংক্রান্ত চিঠি ৫ জুলাই স্পিকারের দপ্তরে পৌঁছেছে।
লতিফ সিদ্দিকীকে বহিষ্কার-সংক্রান্ত চিঠি পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী গতকাল মঙ্গলবার বলেন, ‘৫ জুলাই চিঠি পেয়েছি। তাঁকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছে। এখন আইন অনুযায়ী পদক্ষেপ নেব।

গত বছরের ২৮ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কে প্রবাসী বাংলাদেশিদের এক অনুষ্ঠানে পবিত্র হজ ও তাবলিগ জামাত নিয়ে মন্তব্য করেন লতিফ সিদ্দিকী। এ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা হয়। এরপর তাঁকে মন্ত্রিসভা থেকে অপসারণ করা হয়। গত অক্টোবরে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যপদ ও পরে দলের প্রাথমিক সদস্যপদ থেকেও তাঁকে বহিষ্কার করা হয়। তবে বহিষ্কারের বিষয়টি এত দিন স্পিকারকে জানানো হয়নি।
গত সপ্তাহে এক প্রশ্নের জবাবে স্পিকার বলেছিলেন, ‘লতিফ সিদ্দিকীকে দল থেকে বহিষ্কারের বিষয়টি আওয়ামী লীগ থেকে চিঠি দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে আমাকে জানাতে হবে। তখন আমি আইন অনুযায়ী তাঁর সংসদ সদস্য পদের বিষয়ে নির্বাচন কমিশনে পাঠাব।’

এর আগে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারের আমলে নবম জাতীয় সংসদে সাতক্ষীরা-৪ আসন থেকে নির্বাচিত এইচ এম গোলাম রেজাকে তাঁর দল জাতীয় পার্টি থেকে বহিষ্কার করা হলেও স্পিকার বিষয়টি নির্বাচন কমিশনে পাঠাননি। ফলে তাঁর সংসদ সদস্য পদ বহাল ছিল।
এ বিষয়ে বিশিষ্ট আইনজীবী শাহদীন মালিক বলেন, মেম্বারস অব পার্লামেন্ট (ডিটারমিনেশন অব ডিসপুট) ১৯৮০ অনুযায়ী অভিযোগ পাওয়ার ৩০ দিনের মধ্যে তা নির্বাচন কমিশনকে জানাতে হবে। নির্বাচন কমিশন ৯০ দিনের মধ্যে তাদের সিদ্ধান্ত স্পিকারকে জানাবে।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print