মঙ্গলবার , ১৭ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » সাম্প্রতিক খবর » ‘লতিফকে যেখানে পাওয়া যাবে সেখানেই কতল’

‘লতিফকে যেখানে পাওয়া যাবে সেখানেই কতল’

Latif-Siddiqueনাস্তিকতার অভিযোগ এনে সাবেক মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে কতল বা মাথা কেটে হত্যার হুমকি দিয়েছে কওমি মাদ্রাসাভিত্তিক আলেমদের সংগঠন হেফাজতে ইসলাম।

দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদ্রাসার মহাপরিচালক আল্লামা আহমদ শফীর নেতৃত্বাধীন সংগঠনটির ঢাকা মহানগর শাখার সদস্য সচিব মাওলানা জুনায়েদ আল হাবিব এ হুমকি দেন। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর থেকে কোনও নাস্তিককে ছেড়ে দেওয়া হয়নি। এখনও ছেড়ে দেওয়া হবে না। লতিফ সিদ্দিকীকে বাংলাদেশের মাটিতে মুক্ত অবস্থায় থাকতে দেওয়া হবে না। যেখানে পাওয়া যাবে সেখানেই কতল করা হবে।’

সোমবার রাজধানীর বারিধারায় জামি’আ মাদানিয়া মাদ্রাসায় ঢাকা মহানগর হেফাজতের ইফতার মাহফিলে এ হুমকি দেন হেফাজতের দায়িত্বপ্রাপ্ত জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের কেন্দ্রীয় এ নেতা।

এদিকে সদ্য জামিনে মুক্ত আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে পুনরায় গ্রেফতার করে ফাঁসির দাবি জানিয়েছে ঢাকা মহানগর হেফাজতে ইসলাম। তাকে আবার গ্রেফতার না করা হলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন হেফাজতের ঢাকা মহানগরের আহ্বায়ক মাওলানা নূর হোছাইন কাসেমী।

ইফতার মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের যুগ্ম সদস্য সচিব মোস্তফা আজাদ, অ্যাডভোকেট আব্দুর রকিব, মাওলানা আহমদ আব্দুল কাদের, বাহাউদ্দিন জাকারিয়া, মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী, মুফতি নাসির উদ্দিন খান, মাওলানা ওবায়দুল্লাহ ফারুক প্রমুখ।

এদিকে হেফাজতের পাশাপাশি ধর্ম অবমাননার মামলায় লতিফ সিদ্দিকী জামিনে ছাড়া পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে দেশের ধর্মভিত্তিক রাজনৈতিক দলগুলো।

ইসলামী ঐক্যজোট সোমবার মাগরিবের নামাজের পর লালবাগ থেকে তাৎক্ষণিক প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ মিছিল করে। সেখানে ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব মুফতি ফয়জুল্লাহ বলেছেন, লতিফকে মুক্তি দিয়ে উগ্রবাদী মুরতাদ, নাস্তিক্যবাদী জঙ্গিদের জামাই আদর করা হচ্ছে। মুরতাদ, নাস্তিক্যবাদী, জঙ্গি লতিফদের ঠাঁই বাংলাদেশে হবে না।

আগামী শুক্রবার দেশের প্রতিটি মসজিদ থেকে বিক্ষোভ মিছিলের ঘোষণাও দেয় ইসলামী ঐক্যজোট।

খেলাফতে ইসলামীর আমির মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী বলেছেন, ঈমানদার রোজাদারদের তীব্র আন্দোলনে নাস্তিক-মুরতাদরা খড়কুটোর মতো ভেসে যাবে। লতিফকে জামিন দিয়ে সরকার নিজের জামিন কেটে দিয়েছে। তাই এই সরকারের ক্ষমতায় থাকার কোনও নৈতিক অধিকার নেই। তারা ইসলাম ও মুসলমানদের চরম দুশমন।

সোমবার মতিঝিলে ইসলামী ছাত্র খেলাফত আয়োজিত এক ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ইসলামী ছাত্র খেলাফত বাংলাদেশের সভাপতি আনছারুল হক ইমরানের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি জেনারেল মো. খোরশেদ আলমের সঞ্চালয়না আরও বক্তব্য রাখেন ইসলামী ঐক্যজোটের কেন্দ্রীয় নেতা মাওলানা আবু তাহের জেহাদী, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা আলতাফ হোসাইন, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারী, ছাত্র মসলিসের সভাপতি সোহাইল আহমদ, ছাত্রকল্যাণ পাটির সভাপতি মো. ওমর ফারুক, জাতীয় ছাত্রসমাজের সভাপতি কাজী ফয়েজ আহমদ, জাতীয়তাবাদী বন্ধুদলের সভাপতি শরীফ মোস্তফা জামান লিটু, জমিয়তে তালাবায়ে আরাবিয়ার সভাপতি মো. শাহ জালাল, আঞ্জুমানে তালামিযে আরাবিয়ার সভাপতি বেলাল আহমেদ, ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের জয়েন্ট সেক্রেটারি নুরুন্নবী, ছাত্র খেলাফতের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকারিয়া মাহমুদ, প্রচার সম্পাদক মতিউর রহমান প্রমুখ।

সোমবার সন্ধ্যায় এক বিবৃতিতে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মহাসচিব অধ্যক্ষ ইউনুছ আহমাদ বলেছেন, স্বঘোষিত মুরতাদ আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীকে জামিনে বের হওয়ার সুযোগ দিয়ে সরকার ইসলামবিদ্বেষীদের উস্কে দিয়েছে।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print