বৃহস্পতিবার , ২৬ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » ক্রিকেট » ৩য় দিন শেষে ১৫২ রানে এগিয়ে বাংলাদেশ

৩য় দিন শেষে ১৫২ রানে এগিয়ে বাংলাদেশ

চট্টগ্রাম টেস্টের তৃতীয় দিন শেষে ১৫২ রানের এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে কোনো উইকেট না হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৩ রান। দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ৮ ও ইমরুল কায়েস ১১ রানে অপরাজিত আছেন।
৩য় দিন শেষে ১৫২ রানে এগিয়ে বাংলাদেশপ্রথম ইনিংসে ৯৬ রানে জিম্বাবুয়ের ৫ উইকেট নিয়েছেন জুবায়ের। অন্য বোলারদের মধ্যে শফিউল ২টি এবং সাকিব, তাইজুল ও রুবেল ১টি করে উইকেট নেন
এর আগে শেষ বিকেলে প্রথম ইনিংসে জিম্বাবুয়েকে ৩৭৪ রানে অলআউট করেন বাংলাদেশের বোলাররা।
শুক্রবার বিকেলে ৩৬০ রানের মাথায় চিগুম্বুরা আউট হওয়ার পর আর আশা ছিল না জিম্বাবুয়ের। এরপর শেষ ব্যাটম্যান এমশাংউয়ি ৮ রান করে দলীয় স্কোর ৩৭৪ রানে নিয়ে যান। ৮৮ রান করা চিগুম্বুরাই জিম্বাবুয়ের সর্বোচ্চ স্কোরার।
৯৬ রানে ৫ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের সেরা বোলার জুবায়ের। অন্য বোলারদের মধ্যে শফিউল ২টি ছাড়াও সাকিব, তাইজুল ও রুবেল ১টি করে উইকেট নেন।
চিগুম্বুরা ছাড়াও জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সেকেন্দার রাজা ৮২, হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ৮১ ও রেগিস চাকাভা ৬৫ রান করেন।
শুক্রবার সকালে হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ও সিকান্দার রাজার ১৬০ রানের রেকর্ড জুটি ভাঙেন শফিউল ইসলাম। জিম্বাবুয়ের ১৬৯ রানের মাথায় শফিউলে বলে এলবিডব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফেরেন মাসাকাদজা।
এরপর জিম্বাবুয়ের শিবিরে আঘাত হানেন জুবায়ের হোসেন। দলীয় ১৭২ রানের মাথায় ব্রেন্ডন টেলর ও সিকান্দার রাজাকে সাজঘরে ফেরত পাঠান এ লেগি। এর পর দলীয় ২০৯ রানের মাথায় জুবায়েরের বলে ব্যক্তিগত ১৪ রানে বোল্ড হয়ে ফিরে যান আরভিন।
৬৫ রান করে ৩২২ রানের মাথায় শফিউলের বলে আউট হন চাকাভা। ৩৫৬ রানে মুতুম্বিকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে সাজঘরে পাঠান সাকিব। ১ রান পর তাইজুলের বলে ফিরে যান শিঙ্গিরাই মাসাকাদজা।
গতকাল বুধবার প্রথম ইনিংসে এক উইকেটে ১১৩ রান করে দিনের খেলা শেষ করে সফরকারীরা।
প্রথম ইনিংসে সব উইকেট হারিয়ে ৫০৩ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ। তামিম ইকবাল-ইমরুল কায়েস মিলে ভিতটা খেলার প্রথম দিনই গড়ে দিয়েছিলেন। বৃহস্পতিবার সাকিব- মমিনুলের কার্যকর দুটি ইনিংস শেষে ব্যাট হাতে ঝলক দেখান রুবেল। বাংলাদেশের টেস্ট ইতিহাসে এটি তৃতীয় সর্বোচ্চ সংগ্রহ। প্রথম দুই ম্যাচে জিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের এই সিরিজ এরই মধ্যে জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ।

আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print