শুক্রবার , ২০ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » প্রধান খবর » রামপাল প্রকল্পে অর্থায়নে অস্বীকৃতি ফ্রান্স ব্যাংকের

রামপাল প্রকল্পে অর্থায়নে অস্বীকৃতি ফ্রান্স ব্যাংকের

rampalবাংলাদেশের রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্পের জন্য অর্থায়ন করতে অসম্মতি জানিয়েছে ফ্রান্সের তিনটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক। রামপাল প্রকল্প পরিবেশ বিরোধী এমন আবেদনের প্রেক্ষিতে এমন বৃহস্পতিবার ব্যাংক তিনটি এমন ঘোষণা দিয়েছে বলে ব্রিটেন ভিত্তিক প্রভাবশালী পত্রিকা গার্ডিয়ান জানিয়েছে।

রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্প যখন তহবিল সংকটে ভুগছে সেসময় এমন অসম্মতি জানাল ফ্রান্সের ব্যাংকগুলো। যে তিনটি ব্যাংক রামপালে বিনিয়োগে অস্বীকৃতি জানিয়েছে এগুলো হলো- বিএনপি পরিবাস, এসএ গ্রুপ এবং ব্যাংক ট্র্যাক।

রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্প সুন্দরবন থেকে ১০ কিলোমিটার দুরে হওয়ায় প্রকল্পের কাজে ব্যবহৃত জাহাজ, মাটি খোদাই, বাতাস ও পানির দূষন সুন্দরবনের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়াবে। আর রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্প পুরোপুরি পরিবেশ বান্ধব নয়। এসব কারণে এ প্রকল্পে অর্থায়ন থেকে বিরত থাকছে ফ্রান্সের ব্যাংক তিনটি।

তবে পরিবেশবাদীরা সুন্দরবন থেকে মাত্র ১০ কিলোমিটার দূর অবস্থিত এই প্রকল্পটির ফলে পানি ও বায়ু দূষণের আশঙ্কা করছেন।

1ef51b45-7a07-4104-ac5d-dcf319350f35-620x412-01-newsnextbdসুন্দরবনের ক্ষতির আশঙ্কায় শুরু থেকেই প্রকল্পটির বিরোধিতা করে আসছে তেল-গ্যাস, খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি এবং পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন। এ ব্যাপারে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলনও করে আসছে তারা। তবে সব আন্দোলন আর বিরোধী মতকে উপেক্ষা করে কাজ শুরু হয়েছে রামপালে কয়লাভিত্তিক এই বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের।

গার্ডিয়ান জানায়, ভারতে এনটিপিসির অধীনে রয়েছে ২৫টি কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র। পরিবেশগত দিক থেকে এগুলোর অন্তত ৬টি নিম্নমানের। যেখানে এ ধরনের বিদ্যুৎ কেন্দ্র ৮০ স্কোর পেয়ে থাকে সেখানে ওই ছয়টি পেয়েছে ১৬ থেকে ২৮ ভাগ নম্বর।

রামপাল প্রকল্পের ঝুঁকি বিবেচনায় নিয়ে এসব ব্যাংক অর্থায়নে অস্বীকৃতি জানিয়েছে বলে জানান ক্রেডিট এগ্রিকোলের সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্টের গ্লোবাল হেড স্টানিসলাস টিয়ার।

ছয় মাস আগেও প্রকল্পটির বাস্তবায়ন সংস্থা ভারতের ন্যাশনাল থারমাল পাওয়ার করপোরেশন (এনটিপিসি) থেকে অর্থায়ন সরিয়ে নেয় দুটি নরওয়ের পেনশন তহবিল।  ২০১২সালের চুক্তি অনুসারে ভারতের এ ন্যাশনাল থারমাল পাওয়ার করপোরেশন (এনটিপিসি) বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সাথে যৌথ উদ্যোগে এ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print