বুধবার , ২৫ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » জ্ঞান-বিজ্ঞান » কেন মানুষ চরম সুখে কাঁদে আর চরম দুঃখে হাসে ?

কেন মানুষ চরম সুখে কাঁদে আর চরম দুঃখে হাসে ?

খুব শক্তিশালী ইতিবাচক আবেগের প্রকাশে চোখের পানি ঝরায় মানুষ। নতুন এক গবেষণায় এ তথ্য দেওয়া হয়েছে। আর এই আবেগের চাপ থেকে মুক্তি ঘটায় চোখের পানি। আবার প্রচণ্ড কষ্টের প্রকাশে উন্মাদের মতো হেসেও ওঠে মানুষ।
আমেরিকার ইয়েল ইউনিভার্সিটির মনোবিজ্ঞানী অরিয়ানা আরাগন বলেন, খুব গভীর এবং শক্তিশালী ইতিবাচক আবেগপূর্ণ পরিস্থিতিতে স্নায়ুতে ব্যাপক চাপ সৃষ্টি হয়। এই চাপ থেকে মুক্তি হতেই চোখের পানি বেরিয়ে আসে। আবেগের ভারসাম্য করতেই এসব সহজাতভাবেই ঘটে।
এ গবেষণার জন্য আরাগন ও তার সহকর্মীরা ব্যাপক আবেগময় কিছু পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেন। যেমন- শিশু প্রথম মা বলে ডেকেছে বা বহুদিন পর কাছের বন্ধুরা এক সাথে হয়েছেন বা বিদেশ থেকে বহুকার পর স্বামী বাড়ি ফিরেছেন ইত্যাদি।
গবেষকরা বলেন, কান্নাকে দুঃখ-কষ্ট প্রকাশের আচরণ হিসেবেই ধরা হয়। কিন্তু ইতিবাচক কোনো খবরের প্রচণ্ড আলোড়ন প্রকাশিত হতে পারে কান্নার মতো নেতিবাচক আচরণের মধ্য দিয়ে। কিন্তু এ কান্না সুখের কান্না। আবার এর বিপরীতও সত্য। সীমাহীন দুঃখ-কষ্টের প্রকাশ হতে পারে হাসির মধ্য দিয়ে।
গবেষক বলেন, এসব পরিস্থিতিতে মানুষ আসলে নিজেদের বুঝে উঠতে পারেন না।
‘সাইকোলজিক্যাল সায়েন্স’ জার্নালে প্রকাশিত ওই গবেষণা প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, মানুষের প্রচণ্ড আবেগের প্রকাশ কীভাবে ঘটতে পারে তাই দেখার চেষ্টা করা হয়েছে। এসব আবেগ দৈহিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের সঙ্গে জড়িত। মানুষের অপরের সঙ্গে সম্পর্কের ধরন এবং পারস্পরিক অনুভূতির ওপর এসব আচরণ নির্ভর করে বলেও জানানো হয়।
সূত্র : ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print