বৃহস্পতিবার , ১৯ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » প্রধান খবর » ভেজাল পণ্য পেলেই প্রতিষ্ঠান বন্ধ

ভেজাল পণ্য পেলেই প্রতিষ্ঠান বন্ধ

AMU-e1405780230731রমজান মাসে রাজধানীতে প্রতিদিন ৪টি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হবে। এসব মোবাইল কোর্ট যখন-তখন যেখানে-সেখানে ভেজাল বিরোধী অভিযান পরিচালনা করবে। অভিযান পরিচালনার সময় কোনো প্রতিষ্ঠানে ভেজাল পণ্য পেলে সঙ্গে সঙ্গে সে প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেয়া হবে।

বৃহস্পতিবার শিল্পমন্ত্রণালয়ে রমজান মাসে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যপণ্যের মান নিয়ন্ত্রণে বিএসটিআই গৃহিত বিশেষ কার্যক্রম সম্পর্কে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এ হুঁশিয়ারি দেন।

তিনি বলেন, ‘ভেজাল বিরোধী অভিযান পরিচালনার সময় বড়, ছোট হিসেবে কোনো প্রতিষ্ঠানকে পরিমাপ করা হবে না। ভেজাল পেলে রাস্তার পাশে শরবত বিক্রেতা থেকে বড় প্রতিষ্ঠান কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না।’

আমু বলেন, ‘রমজানে অসাধু ব্যবসায়ীরা যাতে ভেজাল ও নিম্নমানের খাদ্যপণ্য এবং পানীয় প্রস্তুত এবং বিপণন করতে না পারে সে লক্ষ্যে বিএসটিআই সারা দেশে অভিযান পরিচলানা করবে। বিএসটিআইয়ের আঞ্চলিক অফিসের মাধ্যমে সব ধরনের ভেজাল বিরোধী অভিযান পরিচালিত হবে।’

শিল্পমন্ত্রী বলেন, ‘রমজানে বিশেষ করে রোজাদাররা সচরাচর যেসব খাদ্য ও পানীয় গ্রহণ করে থাকেন, যেমন: মুড়ি, খেজুর, কলা, সফ্ট ড্রিংক পাউডার, ফ্রুট জুস, ফ্রুট ড্রিংকস, ভোজ্য তেল, ঘি, নুডলস, লাচ্ছা সেমাই, সেমাই, পানি, ডেক্সট্রোজ মনোহাইড্রেট ইত্যাদির ওপর বিশেষভাবে নজরে থাকবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘রমজানে জেলা প্রশাসন, র‌্যাব ও ডিএমপির উদ্যোগে পরিচালিত মোবাইল কোর্টে নিয়মিতভাবে বিএসটিআইয়ের প্রসিকিউটিং অফিসারদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা হবে। এর ফলে এ অভিযানের স্বচ্ছতা সম্পর্কে কোনো ধরনের প্রশ্নের অবকাশ থাকবে না। ভেজাল বিরোধী অভিযান পরিচালনা করতে গিয়ে যদি প্রভাবশালী কোনো ব্যাক্তি বা প্রতিষ্ঠান জড়িত থাকে তাকে তাকেও ছাড় দেয়া হবে না।’

তিনি বলেন, ‘ইতোমধ্যে ইফ্তার ও সেহেরিতে অধিক পরিমাণে ব্যবহৃত ৩০টি খাদ্যপণ্যের নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পরীক্ষণের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। অচিরেই এসব পন্যের ল্যাব পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হবে। এছাড়া এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। প্রয়োজনে সব ধরণের পণ্যের মান পরীক্ষা করা হবে।’

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে শিল্পসচিব মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, বিএসটিআইয়ের মহাপরিচালক ইকরামুল হক, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সুষেণ চন্দ্র দাসসহ শিল্প মন্ত্রণালয় ও বিএসটিআই এর উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print