বৃহস্পতিবার , ১৯ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » ক্রিকেট » বহু প্রতীক্ষিত ফতুল্লা টেস্ট কাল

বহু প্রতীক্ষিত ফতুল্লা টেস্ট কাল

Bangladesh_Indiaওয়ানডেতে বাংলাদেশের উন্নতি যে গতিতে হয়েছে, ৫ দিনের ক্রিকেটে সেটা হয়নি। টেস্টে যে কোনো বড় দলকে হারানোর ‘বিরাট সাহস’ এখনও হয়ে ওঠেনি টাইগারদের। কাল থেকে শুরু হতে যাওয়া বহু প্রতীক্ষিত ফতুল্লা টেস্টেও বাংলাদেশেশের টার্গেট জয় নয়, ড্র। ভারতের মতো দলের বিপক্ষে ড্র করতে পারলেই যে সেটা জয়ের আবেদন স্পর্শ করবে। গত কিছু দিন ধরে তো এমনটাই বলেছেন সবাই।
পার্টটাইম অধিনায়ক হিসেবে চার টেস্টে ভারতকে নেতৃত্ব দিয়ে এরই মধ্যে আক্রমণাত্মক অধিনায়কের উপাধি পেয়ে গেছেন বিরাট কোহলি। তবে অধিনায়ক হিসেবে এখনও ৫ দিনের ম্যাচে জেতাতে পরেননি দলকে। বাংলাদেশকে হারিয়ে অধিনায়কত্বের ফুল টাইম দায়িত্বটা অন্যরকম শুরু করতে চেষ্টার কমতি থাকবে না কোহলির।
কিন্তু ফতুল্লার ব্যাটিং স্বর্গে জয়ের হিসেবটা সহজ নয়। এই উইকেটে প্রতিপক্ষের ২০ উইকেট নেওয়া কঠিনই নয়, বেশ কঠিন। যদিও ফতুল্লায় হওয়া একমাত্র টেস্টে বাংলাদেশের ২০ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব দেখিয়েছিল অজি বোলাররা। ২০০৬ সালের সেই ম্যাচে প্রথম ইনিংসে বড় ইনিংস গড়েও শেষ পর্যন্ত ৩ উইকেটে হেরে গিয়েছিল বাংলাদেশ।
১৫ বছরে ভারতের সঙ্গে সাকুলে ৭টি টেস্ট খেলার সুযোগ হয়েছে বাংলাদেশের। ৬টিতে হার, ১টি ড্র। ২০০৭  সালে চট্রগ্রামে ভারতের সঙ্গে ড্র করেছিল বাংলাদেশ। সর্বশেষ ২০১০ সালে বাংলাদেশ সফরে করে যায় ভারত। সেবার ২-০তে সিরিজ জিতেছিল তারা।
ব্যাটিং উইকেট। বাংলাদেশের লক্ষ্য দীর্ঘ সময় উইকেটে থাকা। এ কারণে হয়তো ৮জন ব্যাটসম্যান নিয়ে মাঠে নামতে পারে স্বাগতিকরা। অনামিকার ইনজুরির পুরোপুরি না সারায় এ ম্যাচে উইকেট কিপিং করছেন না অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। তার পরিবর্তে উইকেট কিপিং করবেন ঘরোয়া লিগে দারুণ খেলা লিটন কুমার দাশ। উইকেট কিপিংয়ের পাশাপাশি ব্যাটিংও বেশ ভালো করেন লিটন।
একাদশে থাকছেন লেগ স্পিনার জুবায়ের হোসেন এবং অফ স্পিনার তাইজুল ইসলাম। অরেক দিন পর একজন লেগ এবং একজন অফ স্পিন বিশেষজ্ঞ নিয়ে একাদশ সাজাতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। সঙ্গে সাকিব তো আছেনই।
এক না দুই পেসার নিয়ে দল সাজানো হবে, এই নিয়ে এখনও সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি টিম ম্যানেজমেন্ট। একজন পেসার নেওয়া হলে বাদ পড়বেন শহিদ। মানে রুবেল থাকবেন একাদশে। সেক্ষেত্রে শুভাগত হোম ঢুকে পড়বেন একাদশে। আর দুই পেসার নেওয়া হলে বাড় পড়বেন শুভাগত।
ভারত অবশ্য দুই পেসার নিয়েই একাদশ সাজাচ্ছে। উমেশ যাদবের সঙ্গে কে থাকেন সেটাই দেখার। স্পিনার হরভজন সিংয়ের একাদশে জায়গা পাওয়াটা নিশ্চিত নয়। একাদশে ঢুকতে তাকে লড়াই করতে হচ্ছে কারণ শর্মার সঙ্গে।
সম্ভাব্য বাংলাদেশ একাদশ : তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, মমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম ( অধিনায়ক), লিটন দাশ (উইকেট কিপার), সাকিব আল হাসান, সৌম্য সরকার, শুভাগত হোম/ মোহাম্মদ শহিদ, জুবায়ের হোসেন, তাইজুল ইসলাম, রুবেল হোসেন।
সম্ভাব্য ভারতীয় একাদশ : এম বিজয়, শেখর ধাওয়ান, এস পূজারা, বিরাট কোহলি, অজিঙ্কে রাহানে, রোহিত শর্মা, এস সাহা ( উইকেট কিপার), রবি চন্দন অশ্বিন, ইশান্ত শর্মা/বি কুমার/ বরুন অ্যারোন, উমেশ যাদব।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print