শুক্রবার , ২০ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » ক্রিকেট » রেকর্ড গড়ে চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা

রেকর্ড গড়ে চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা

barselonaনেইমার ও লুইস সুয়ারেজ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জয়ের আশা নিয়ে বার্সেলোনায় এসেছেন। বার্লিনের ফাইনালে জুভেন্টাসকে বার্সেলোনা ৩-১ গোলে হারানোয় দুজনের সেই স্বপ্ন পূরণ হলো, ফাইনালে গোল করলেন ব্রাজিল ও উরুগুয়ের তারকা। লিওনেল মেসি গোল না পাওয়ায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জেতা বার্সার কী একটা অপূূর্ণতা থেকে গেলো না! গোল নিয়ে অবশ্য কোনো মাথা ব্যধা থাকার কথা নয়। বার্সেলোনার তিনটি গোলেই অবদান রাখা এই আর্জেন্টাইন তারকাই যে ফাইনালের অলিখিত সেরা খেলোয়াড়। যদিও ম্যাচ সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জয় করেন আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা।

শনিবার বার্লিনের অলিম্পিক স্টেডিয়ামে ৪ মিনিটের মাথায় এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। প্রথমার্ধ ১-০ থাকার পর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে সমতায় ফেরে জুভেন্টাস। ৫৪ মিনিটে ১-১ গোলে সমতা ফেরায় জুভরা। বার্সা শিবির কিছুটা চাপে। তবে লিওনেল মেসির মতো তারকা যেই দলে থাকে তাদের তো নির্ভারই থাকার কথা। হ্যাঁ, মেসি ফের ঝলক দেখালেন, দলকে এগিয়ে নিলেন। ৬৭ মিনিটে মাঝমাঠ ট্রেডমার্ক দৌড় দেন মেসি। ডি বক্সের ভেতর থেকে জোরালো শট নেন এলএম টেন। দুর্দান্ত দৃঢ়তায় বুফন শট ফিরিয়ে দিলেও ফিরতি বলে লুইস সুয়ারেজের নেয়া বুলেটগতির শট বুফন তো দূরের কথা কোনো গোলরক্ষকের পক্ষেই ঠেকানো সম্ভব নয়।

এর চার মিনিট পর নেইমারের গোল হ্যান্ডবলের কারণে বাতিল করে দেন ম্যাচ রেফারি। ডি বক্সের ভেতরে থেকে দুর্দান্ত হেড করে গোল করেছিলেন নেইমার। তবে বলে মাথা ছোঁয়ানোর আগেই হাতে স্পর্শ লাগে ব্রাজিলিয়ান তারকার। ফলে গোল বাতিল করেন রেফারি।

চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে জুভেন্টাসকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ইতিহাস গড়লো বার্সেলোনা। এ জয়ের ফলে দ্বিতীয়বারের মতো ট্রেবল জয়ের স্বাদ পেলো বার্সেলোনা।

শনিবার দিবাগত রাতে ইউরোপের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ টুর্নামেন্টের ফাইনালে এ ইতিহাস গড়ে তারা। বার্সার হয়ে একটি করে গোল করেন- রাকিটিচ, সুয়ারেজ এবং নেইমার। অপরদিকে জুভেন্টাসের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন আলভেরো মোরাতা।

বার্লিনের অলিম্পিক স্টেডিয়ামে ৪ মিনিটের মাথায় এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। এরপর আর গোল উভয় পক্ষ গোল না পাওয়ায় প্রথমার্ধ শেষ হয় ১-০ তে। দ্বিতীয়ার্ধে খেলতে নেমে ম্যাচের ৪৮ মিনিটে দারুণ এক সুযোগ হাতছাড়া করেন সুয়ারেজ। কাউন্টার অ্যাটাক থেকে নেইমারের বাড়িয়ে দেয়া বলে তার নেয়া শট দারুণ দক্ষতায় ঠেকিয়ে দেন জুভদের গোলবারের অতন্দ্র প্রহরী বুফন। ম্যাচের ৫০ মিনিটে আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মেসি শট নিলেও তা লক্ষ্যে রাখতে পারেননি। ম্যাচের ৫৪ মিনিটে স্প্যানিশ স্ট্রাইকার আলভেরো মোরাতার গোলে সমতায় ফেরে জুভেন্টাস।

ডি বক্সে তেভেজের নেয়া শট ফিরিয়ে দিলে তা নিজের গ্রিপে রাখতে পারেননি স্টেগান, ফিরতি বলে জুভদের হয়ে লক্ষ্যভেদ করেন সাবেক রিয়াল স্ট্রাইকার মোরাতা। ৬৪ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে পল পগবার নেয়া জোরালো শট দক্ষতার সাথে লুফে নেন কাতালানদের গোলরক্ষক স্টেগান।

ম্যাচের ৬৮ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাক থেকে গোল করে বার্সাকে ২-১ গোলের লিড এনে দেন বার্সার উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ। এরপর অতিরিক্ত সময়ের ২য় মিনিটের শেষ মিনিটে বার্সার হয়ে গোল করে ব্যবধান ৩-১ করেন ব্রাজিলিয়ান অধিনায়ক নেইমার।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print