রবিবার , ২২ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » বিশ্ববিদ্যালয় » প্রশাসনের অভিযোগ নিষ্পত্তির ক্ষমতা পেল মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ

প্রশাসনের অভিযোগ নিষ্পত্তির ক্ষমতা পেল মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ

bangladesh governmentপ্রশাসন ক্যাডারে মাঠ পর্যায়ে কর্মরত কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ দ্রুত নিষ্পত্তির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এখন থেকে তাদের বিরুদ্ধে দায়ের কৃত অভিযোগ সরাসরি নিষ্পত্তি করবে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। আগে অভিযোগগুলো জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হতো। এ মন্ত্রণালয় অভিযোগ যাচাই-বাচাই করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগকে অনুরোধ করতো। এতে অভিযোগগুলো নিষ্পত্তি হতে সময় লাগতো। ফলে মাঠ পর্যায়ে কাজে স্থবিরতা দেখা দিতো।

এসব কিছ বিবেচনায় সরকার অভিযোগ নিষ্পত্তির নতুন এ উদ্যোগ নিয়েছে। গত ২৬ মে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মাঠ প্রশাসন শৃঙ্খলা শাখা এ সংক্রান্ত পরিপত্র জারি করে।

পরিপত্রে ২০০১ সালের মন্ত্রিপরিষদের সিডি/ডিএ-৩/৫/(২৩)/৯২(অংশ-২)-৪৫৫ স্বারক বাতিল করা হয়েছে। এ সংক্রান্ত আদেশ সকল বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের কাজে পাঠানো হয়েছে।

পরিপত্রে বলা হয়েছে, সরকারের Rules of business 1996 এর Schedule-1 অর্থাৎ Allocation of business among the different ministries and divisions অনুযায়ী জেলা, উপজেলা এবং বিভাগীয় পর্যায়ের  সাধারণ প্রশাসন সম্পর্কিত বিষয়াদি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের কার্যপরিধিভুক্ত।
জেলা, উপজেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ে সাধারণ প্রশাসনে কর্মরত বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রাথমিকভাবে নিম্পত্তির দায়িত্ব মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপর ন্যস্ত। কারণ লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, কোন কোন ক্ষেত্রে ও সকল কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ নিষ্পত্তির জন্য মাঠ পর্যায় থেকে প্রাথমিক প্রতিবেদন / মতামত সরাসরি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয় এবং সেই অনুযায়ী জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় অভিযোগ নিম্পত্তির জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগকে অনুরোধ জানায়। এতে কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে দায়ের করা অভিযোগ নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে অহেতুক সময় ও কালক্ষেপণ করা হয়। এছাড়া কোন কোন ক্ষেত্রে তদন্ত প্রতিবেদন পুর্ণাঙ্গ ও স্বয়ংসম্পূর্ণ না হওয়ার কারণে সিদ্ধান্ত গ্রহণের বিলম্ব ঘটে।
পরিপত্রে আরো বলা হয়েছে, উপযুক্ত প্রেক্ষাপটে উপজেলা, জেলা ও বিভাগ পর্যায়ে সাধারণ প্রশাসনের কর্মরত বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে প্রাপ্ত অভিযোগ দ্রুততার সঙ্গে যথাযথভাবে নিষ্পত্তির লক্ষ্যে নিম্নলিখিত পদ্ধতি অনুসরণ করতে বলা হয়েছে।
এতে বলা হযেছে, মাঠ প্রশাসনে কর্মরত কোন কর্মকর্তার বিরুদ্ধ জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে অভিযোগ পাওয়া গেলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়তা সঙ্গে সঙ্গে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে প্রেরণ করবে।
আনীত অভিযোগের বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মতামতের আলোকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ব্যবস্থা নিবে।

সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে অভিযোগকারীসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে তদন্তকারী কর্মকর্তা কর্তৃক নোটিশ দিতে হবে। তদন্ত কার্যক্রম নৈব্যত্তিক ও বস্তুনিষ্ঠ এবং তদন্ত প্রতিবেদন পুর্ণাঙ্গ ও স্বয়ংসম্পূর্ণ হতে হবে। তদন্ত প্রতিবেদনে সুষ্পষ্ট মতামত থাকতে হবে।
প্রাথমিক তদন্তের প্রতিবেদন প্রাসঙ্গিক তথ্যাদিসহ মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে প্রেরণ করতে হবে। তদন্ত প্রতিবেদনের সঙ্গে জেলা প্রশাসকের সুষ্পষ্ট মতামত পাঠাতে হবে।
বিভাগীয় কমিশনারের মতামতসহ তদন্ত প্রতিবেদন প্রেরণের জন্য জেলা প্রশাসকের প্রতিটি নির্দেশনা থাকলে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক তদন্ত প্রতিবেদন বিভাগীয় কমিশনারে কাজে প্রেরণ করবেন। বিভাগীয় কমিশনার তার মতামতসহ প্রতিবেদনটি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠাবেন।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ কর্তৃক নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে তদন্ত সম্পন্ন করতে হবে এবং নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে তদন্ত সম্পন্ন করা সম্ভব না হলে ও যৌতিক কারণ উল্লেখপূর্বক সময় বৃদ্ধির জন্য যথা সময়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগকে অনুরোধ জানাতে হবে।

আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print