বুধবার , ২০ জুন ২০১৮
মূলপাতা » কলেজ » একাদশ শ্রেণির ভর্তির আবেদন শুরু ৬ জুন

একাদশ শ্রেণির ভর্তির আবেদন শুরু ৬ জুন

hsc২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণির ভর্তির নীতিমালা আজ সোমবার জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। নীতিমালা অনুযায়ী আবেদন গ্রহণ শুরু হবে ৬ জুন। চলবে ১৮ জুন পর্যন্ত।

যারা পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করবে তাদেরও একই সময়ে আবেদন করতে হবে। তবে যাদের পুনঃনিরীক্ষণে ফল পরিবর্তন হবে তারা ২১ জুন ভর্তির আবেদন করতে পারবে। ভর্তির জন্য মনোনীতদের তালিকা প্রকাশ করা হবে ২৫ জুন। বিলম্ব ফি ছাড়া ভর্তি ও ফি জমার শেষ সময় ৩০ জুন। আর ক্লাস শুরু হবে ১ জুলাই।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে নীতিমালাটি দেওয়া হয়েছে। এবার সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অনলাইনে ভর্তি কার্যক্রমের সুযোগ রাখা হয়েছে। তবে যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ন্যূনতম ৩০০ জন শিক্ষার্থী আছে সেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বাধ্যতামূলকভাবে অনলাইনে অথবা টেলিটকে খুদে বার্তার মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। যেসব প্রতিষ্ঠানে ৩০০ জনের কম শিক্ষার্থী আছে তারাও অনলাইনে ভর্তির কার্যক্রম গ্রহণ করতে পারবে।

অনলাইনে আবেদনের ক্ষেত্রে একজন ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থী ১৫০ টাকা আবেদন ফি টেলিটকের মাধ্যমে জমা দিয়ে সর্বোচ্চ পাঁচটি কলেজ বা সমমানের প্রতিষ্ঠানের পছন্দক্রম দিতে পারবে। অন্যদিকে খুদে বার্তার ক্ষেত্রে প্রতি কলেজ বা সমমানের প্রতিষ্ঠানের জন্য ১২০ টাকা ফি দিয়ে পছন্দক্রম অনুযায়ী একাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আবেদন করতে পারবে।

আন্তশিক্ষা বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ভর্তির কাজটি সমন্বয় করছে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড। এই বোর্ডের সিনিয়র সিস্টেম অ্যানালিস্ট মঞ্জুরুল কবীর প্রথম আলোকে বলেন, অনলাইনের ক্ষেত্রে www.xiclassadmission.gov.bd ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। আবেদনে দেওয়া পছন্দক্রম থেকে শিক্ষার্থীর এসএসসি ও সমমানের ফলের ভিত্তিতে ভর্তির কলেজ নির্ধারণ করা হবে। এই কাজে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) কারিগরি সহায়তা নেওয়া হয়েছে।

বিষয়ে নীতিমালায় বলা হয়, অনলাইনে আবেদন বা খুদে বার্তা পাওয়ার পর কোনো কলেজ বা সমমানের প্রতিষ্ঠান তার আসনসংখ্যার সমান ভর্তিযোগ্য প্রার্থীর মেধাক্রম তালিকা (বোর্ড থেকে নেওয়া) কলেজের নোটিশ বোর্ড ও নিজেদের ওয়েবসাইটে প্রকাশের ব্যবস্থা করবে। মোট আসনে নির্বাচিত কোনো প্রার্থী নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভর্তি না হলে বা অন্য কোনো কারণে আসন শূন্য হলে বোর্ড শিক্ষার্থীদের পছন্দক্রম অনুযায়ী ওই শূন্য আসনের দ্বিতীয় মেধা তালিকা প্রকাশ করবে।

আগের মতো এসএসসি বা সমমান পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে ভর্তি হবে, কোনো বাছাই বা ভর্তি পরীক্ষা হবে না। তবে নটর ডেম কলেজ এর আগে আদালতের রায় নিয়ে একাধিকার বার ভর্তি পরীক্ষা নিয়েছে।

ভর্তি ফি কোথায় কত: সেশন চার্জসহ ভর্তি ফি সব মিলিয়ে মফস্বল বা পৌর (উপজেলা) এলাকায় এক হাজার, পৌর (জেলা সদর) এলাকায় দুই হাজার, ঢাকা ছাড়া অন্য মহানগর এলাকায় তিন হাজার এবং ঢাকা মহানগর এলাকায় এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে পাঁচ হাজার টাকার বেশি নেওয়া যাবে না। তবে ঢাকা মহানগরে অবস্থিত আংশিক এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বাংলা মাধ্যমে নয় হাজার, ইংরেজি ভার্সনে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা নেওয়া যাবে।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print