সোমবার , ২৩ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » অন্যান্য » গারো তরুণী ধর্ষণ: সেই তুষারসহ গ্রেপ্তার ২

গারো তরুণী ধর্ষণ: সেই তুষারসহ গ্রেপ্তার ২

Rap tusharগারো তরুণীকে গণধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষক তুষার ও গাড়িচালক লাভলুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে র‌্যাবের একটি দল  কুয়াকাটা থেকে আশরাফ তুষার ও ঢাকা থেকে মাইক্রোবাসচালক লাবলুকে গ্রেপ্তার করে।

গারো তরুণীকে গাড়িতে তুলে নির্যাতন চালানোর সময় যে একটি ফোন কল আসে তার সূত্র ধরেই র‌্যাবের গোয়েন্দারা তাদের গ্রেপ্তার করে।

বুধবার সকালে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার উপ-পরিচালক রুম্মান মাহমুদ বাংলামেইলকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তবে তিনি বিস্তারিত কিছু জানাননি।

তিনি বলেন, দুপুর ১২টায় র‌্যাব সদর দপ্তরে ব্রিফিংয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

জানা যায়, তরুণীকে মাইক্রোবাসে ধর্ষণের সময় একটি ফোন আসে। ‘তুষার’ সম্বোধন করে মাইক্রোবাসের ড্রাইভার সেই ফোনটি এগিয়ে দেয়। গারো তরুণী পুলিশের কাছে সেই নামটি প্রকাশ করে।

র‌্যাবের একটি সূত্র বাংলামেইলকে জানিয়েছে, মঙ্গলবার রাতের যে কোনো সময় তুষারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সোমবার থেকেই সে র‌্যাবের গোয়েন্দাদের নজরদারির মধ্যে ছিল। বর্বর ওই ঘটনায় জড়িত অন্যদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

তুষার একটি বিদেশি প্রতিষ্ঠানের মাইক্রোবাস চালক। ওই তরুণীও গণধর্ষণের শিকার হন মাইক্রোবাসের মধ্যেই।

বৃহস্পতিবার রাতে কুড়িল বিশ্বরোড এলাকা থেকে অস্ত্রের মুখে ওই গারো তরুণীকে মাইক্রোবাসে উঠিয়ে পাঁচ যুবক ধর্ষণ করে উত্তরার জসিম উদ্দিন রোডে ফেলে যায়। এই ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে ওই তরুণী বাদী হয়ে পাঁচ যুবকের বিরুদ্ধে ভাটারা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নম্বর ২৬।

ধর্ষণের শিকার মেয়েটি যমুনা ফিউচার মার্কেটে একটি পোশাকের দোকানে সেলসম্যান হিসেব কাজ করে। ধর্ষণের ঘটনা ঘটার আগের রোববার তুষার ওই দোকানে গিয়েছিল দুইজন বিদেশি নিয়ে। কেনাকাটার এক পর্যায়ে তুষারের সঙ্গে মেয়েটির পরিচয় হয়। মেয়েটি কোথায় থাকে কত টাকা বেতন পায়, সেই টাকায় তার চলে কিনা- নানা বিষয়ে তথ্য নেয় তুষার।

ধর্ষকদের মধ্যে তুষারও ছিল বলে মেয়েটি পুলিশকে জানিয়েছে।

মামলার পর শনিবার ওই তরুণীকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে পরীক্ষা শেষে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, প্রাথমিক পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। সাত দিন পর চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেয়া হবে।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print